Home উৎসব শ্রীরামপুরেপ্রাচীনতম মাহেশের রথযাত্রা দেখতে এসেছিলেন বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর...

শ্রীরামপুরেপ্রাচীনতম মাহেশের রথযাত্রা দেখতে এসেছিলেন বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর…

ভারতের প্রাচীতম উৎসবের মধ্যে রথযাত্রা অন্যতম। ভারতের দ্বিতীয় প্রাচীনতম রথযাত্রা উৎসব পালিত হয় শ্রীরামপুর মাহেশে (ভারতের প্রথম প্রাচীনতম রথযাত্রা পুরীর রথযাত্রা)। ১৩৯৬ খ্রিস্টাব্দ থেকে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।



পশ্চিমবঙ্গের শ্রীরামপুর এ এই মাহেশের রথযাত্রা পালিত হয়। মাহেশের রথযাত্রায় ১ মাস ধরে মেলা বসে। বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষজনের ভিড় জমে রথের দিন। সোজা রথের দিন জগন্নাথের প্রধান মন্দির থেকে জগন্নাথ, বলরাম, সুভদ্রা কে নিয়ে মাসির বাড়ি রওনা দেয়, এবং উল্টো রথের দিন অর্থাৎ আটদিন পর আবার জগন্নাথের মূল মন্দিরে ফিরিয়ে আনা হয়।



হুগলী জেলার মাহেশের রথযাত্রার পিছনে লুকিয়ে আছে একটি কিংবদন্তি। প্রচলিত আছে ধ্রুবানন্দ ব্রহ্মচারী নামে এক সাধক পুরীতে তীর্থ করতে যান। তার মনের কামনা ছিল তিনি নিজের হাতে ভোগ তৈরি করে জগন্নাথ দেবকে খাওয়াবেন, কিন্তু খাবার মন্দিরে নিয়ে যাওয়ার সময় পান্ডাদের বাধা পেয়ে তিনি আর জগন্নাথ দেবকে ভোগ পরিবেশন করতে পারলেন না, সেই দুঃখে তিনি অনশনে বসলেন। ৩ দিন পর তিনি জগন্নাথ দেবের স্বপ্নাদেশ পেলেন। জগন্নাথ দেব তাকে আদেশ দিলেন “ধ্রুবানন্দ তুমি তোমার নিজ বঙ্গ দেশে ফিরে যাও, সেখানে ভাগীরথী নদীর তীরে মাহেশে আমার মন্দির প্রতিষ্ঠা করো।



আমি তোমাকে নিম গাছের ডাল পাঠিয়ে দেবো সেই নিমগাছের কাঠ দিয়ে তুমি বলরাম, সুভদ্রা এবং আমার মূর্তি গড়ে তোলো”। এই স্বপ্নাদেশ পেয়ে ধ্রুবানন্দ সাধনা শুরু করেন, এবং হঠাৎ এক বর্ষার দিন ভাগীরথী নদী দিয়ে একটি নিমডাল ভেসে আসে। জগন্নাথ দেবের কথা মত সেই নিমডাল ধ্রুবানন্দ জগন্নাথ, বলরাম, সুভদ্রার মূর্তি তৈরি করে মন্দিরে প্রতিষ্ঠা করেন।



এরপর ১৭৫৫ নয়নচাঁদ মল্লিক (কলকাতার) মাহেশে জগন্নাথদেবের মন্দির প্রতিষ্ঠা করেন। এই মন্দির প্রায় ১২৯ বছরের পুরনো। যা এক ঐতিহ্য বহন করে আসছে। সেই সময় কলকাতার শ্যামবাজারের বসু পরিবারের সদস্য কৃষ্ণচন্দ্র বসু প্রায় ২০ হাজার টাকা খরচা করে রথটি তৈরি করিয়ে দিয়েছিলেন। মা রথে ১২ টি লোহার চাকা এবং ৫০ ফুট উচ্চতা সম্পন্ন দুটি ঘোড়া আছে।



সবচেয়ে উল্লেযোগ্য বিষয় হল বঙ্কিচন্দ্রের “রাধারাণী” উপন্যাসে মাহেশের রথের উল্লেখ আছে। বহু ঋষি মনীষীদের পদধূলি মাহেশে পড়েছে। তার মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। শোনা যায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর একবার মাহেশে রথযাত্রা দেখতে এসেছিলেন।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

মুক্তি পেলো “KSS PRODUCTION & ENTERTAINMENT”এর স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি “দোয়া”(Dua)

প্রযোজক হিসেবে কান সিং সোধা বরাবরই নতুন প্রতিভাদের উৎসাহ দিয়ে চলেছেন। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটে নি। কান সিং সোধা ও KSS PRODUCTION & ENTERTAINMENT"...

“ময়ূরপঙ্খীর” তরফ থেকে দিনমজুর ও রিক্সা চালকদের জন্য ঈদ উপলক্ষে কিছু উপহার প্রদান করা হলো

"ময়ূরপঙ্খী শিশু কিশোর সমাজ কল্যাণ সংস্থা" র পক্ষ থেকে এবং গ্লোবাল স্পা ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় ঢাকার মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় অসহায়, বয়স্ক, দিনমজুর ও রিক্সা চালকদের...

মায়ের মৃত্যুদিনে পথ পশুদের কল্যাণার্থে পারমিতা মুন্সী ভট্টাচার্য এর পরিচালনায় হয়ে গেলো ‘বর্ষ বরণে বিবিয়ানা’

পথপশুদের কল্যাণার্থে শিবানী মুন্সী প্রোডাকশনের 'বর্ষবরণে বিবিয়ানা' শীর্ষক বাংলা নববর্ষের ক্যালেন্ডার প্রকাশ হয়ে গেল। এই ক্যালেন্ডার থেকে সংগৃহীত অর্থ খরচ করা হবে পথ পশুদের...

কি করলে আপনাকে বা আপনার পরিবারকে ছুঁতে পারবেনা করোনা

বর্তমানের ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে নিস্তার পাওয়াটাই এখন সকল মানুষের একমাত্র লক্ষ্য. কিন্তু কিভাবে পাবো এই ভয়ানক কোবিড ১৯ এর হাত থেকে মুক্তি? কোবিড ১৯ ভাইরাস...