Home ফিচার আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হবে পৃথিবী, বলছে মায়া ক্যালেন্ডার

আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হবে পৃথিবী, বলছে মায়া ক্যালেন্ডার

আর মাত্র কয়েকদিন, আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হবে পৃথিবী, বলছে মায়া ক্যালেন্ডার

ধ্বংস হবে পৃথিবী, হ্যাঁ এমনটাই শোনা গেছিল
২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর, তবে সেবার হিসেব না মিললেও আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হতে চলেছে পৃথিবী, আশঙ্কা এমনটাই ।

৮ বছর আগে একটি নির্দিষ্ট গননায় বিশেষজ্ঞরা ধ্বংসের দিন নির্ধারণ করেছিলেন। তবে সে বছর গননা ভুল হওয়ায় বিপদ থেকে রক্ষা পেলেও মায়া ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আশঙ্কা সেই বিপদ ঘটতে চলেছে আগামী সপ্তাহে।
আজ থেকে ৫ হাজার ১২৫ বছর আগে শুরু হওয়া মায়া ক্যালেন্ডারের হিসেব অনুযায়ী এই ক্যালেন্ডার শেষ হচ্ছে ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর। যার ফলে মায়া ক্যালেন্ডার শেষের দিনেই পৃথিবী ধ্বংস হতে পারে বলে জানিয়েছিলেন কনস্পিরেসি থিয়োরিস্ট রা। সেদিন কিছুই না হওয়ায় অনেকে একে মিথ্যা ভাবলেও ইতিহাসবিদ রা বলছেন মধ্য আমেরিকার প্রাচীন মায়া সভ্যতা যা মেক্সিকো, গুয়াতেমালা, হন্ডুরাস এবং এল সালভাদর অঞ্চল নিয়ে প্রতিষ্ঠিত ছিল তাদের ব্যবহৃত এই ক্যালেন্ডার অনুযায়ী সেখানে উল্লেখিত ভবিষ্যদ্বাণী অনেকাংশে মিলে গেছে।
উন্নত এই প্রাচীন মায়া সভ্যতার মানুষ গণিত, জ্যোতির্বিদ্যা, স্থাপত্যবিদ্যা সহ একাধিক বিষয়ে জ্ঞানী ছিল, অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দিন-তারিখের হিসেব লিপিবদ্ধ করা এই মায়া ক্যালেন্ডারের সাথে কোনো মিল নেই বর্তমান ক্যালেন্ডারের। কারণ সেই ক্যালেন্ডারে অক্ষর এবং সংখ্যা ছিল না, সেখানে ছিল হায়ারোগ্লিফিক চিত্র, ২০১২ তে সেই হিসেব না মেলায় থিয়োরিস্টরা নিজেদের হিসেবের একটি ত্রুটি সমাধান করে জানিয়েছেন আমরা বর্তমানে মায়া ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ২০১২ সালে আছি। গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারের ১১ দিনে এক দিন পরিবর্তন হয় মায়া ক্যালেন্ডারে, মায়া ক্যালেন্ডার ১৭৫২ থেকে শুরু,যার ফলে হিসেবটা অনেকটা এরকম ২৬৮*১১=২৯৪৮ দিন। ২৯৪৮/ ৩৬৫ = ৮ বছর।
অর্থাৎ ২০১২ + ৮ = ২০২০
তাই ২০২০ তে পৃথিবী ধ্বংসের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন তাঁরা। এখনো পর্যন্ত ২০২০ র ভয়াবহতার সাক্ষী সকলেই তাতে এই ২০২০ তে কি মায়া ক্যালেন্ডার অনুযায়ী পৃথিবী সত্যি ধ্বংস হবে, আশঙ্কায় আতঙ্কিত অনেকেই৷

- Advertisment -

জনপ্রিয়

শুরু হয়ে গেলো দেব রুক্মিনীর ভালোবাসার নতুন সফর! “কিশমিশ”-এর শুভ মহরত…

বড়ো পর্দায় চ্যাম্প, কিডন্যাপ, ককপিট, কবীর, পাসওয়ার্ড এর মতো ছবিতে একসঙ্গে দেখা মিলেছে দেব রুক্মিণী জুটির. এবার ষষ্ঠ বার সিলভার স্ক্রিনে জুটি বাঁধতে চলেছেন...

ঘুম থেকে উঠে মানুন কিছু ছোট্ট টোটকা….

ফর্সা হতে চান! ঘুম থেকে উঠে মানুন কিছু ছোট্ট টোটকা এখন কেবল নারীরা নয়, পুরুষরাও নিজেকে সভান সুন্দর ও আকর্ষনীয় দেখাতে আগ্রহী। নিজেকে ফর্সা ও...

অতনু ঘোষের ছবি ‘শেষ পাতায়’ থাকছেন প্রসেনজিৎ-গার্গী-বিক্রম…

এই অতিমারীর পরিস্তিতি স্বাভাবিক হলেই ছন্দে ফিরবে টলিউড ইন্ডাস্ট্রি. পরবর্তী ছবির ঘোষণা করলেন পরিচালক অতনু ঘোষ. 'ময়ূরাক্ষী', 'রবিবার' এর পর অতনু ঘোষের "শেষ পাতা"...

অঙ্গ দান করলেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার…

এই করোনা পরিস্তিতিতে আগের বছর থেকেই বিভিন্ন অভিনেতা অভিনেত্রীদের দেখা গেছে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে. কিন্তু এবার এক অভিনব প্রয়াস অঙ্গ দান করতে এগিয়ে...