Home ফিচার আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হবে পৃথিবী, বলছে মায়া ক্যালেন্ডার

আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হবে পৃথিবী, বলছে মায়া ক্যালেন্ডার

আর মাত্র কয়েকদিন, আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হবে পৃথিবী, বলছে মায়া ক্যালেন্ডার

ধ্বংস হবে পৃথিবী, হ্যাঁ এমনটাই শোনা গেছিল
২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর, তবে সেবার হিসেব না মিললেও আগামী সপ্তাহে ধ্বংস হতে চলেছে পৃথিবী, আশঙ্কা এমনটাই ।

৮ বছর আগে একটি নির্দিষ্ট গননায় বিশেষজ্ঞরা ধ্বংসের দিন নির্ধারণ করেছিলেন। তবে সে বছর গননা ভুল হওয়ায় বিপদ থেকে রক্ষা পেলেও মায়া ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আশঙ্কা সেই বিপদ ঘটতে চলেছে আগামী সপ্তাহে।
আজ থেকে ৫ হাজার ১২৫ বছর আগে শুরু হওয়া মায়া ক্যালেন্ডারের হিসেব অনুযায়ী এই ক্যালেন্ডার শেষ হচ্ছে ২০১২ সালের ২১ ডিসেম্বর। যার ফলে মায়া ক্যালেন্ডার শেষের দিনেই পৃথিবী ধ্বংস হতে পারে বলে জানিয়েছিলেন কনস্পিরেসি থিয়োরিস্ট রা। সেদিন কিছুই না হওয়ায় অনেকে একে মিথ্যা ভাবলেও ইতিহাসবিদ রা বলছেন মধ্য আমেরিকার প্রাচীন মায়া সভ্যতা যা মেক্সিকো, গুয়াতেমালা, হন্ডুরাস এবং এল সালভাদর অঞ্চল নিয়ে প্রতিষ্ঠিত ছিল তাদের ব্যবহৃত এই ক্যালেন্ডার অনুযায়ী সেখানে উল্লেখিত ভবিষ্যদ্বাণী অনেকাংশে মিলে গেছে।
উন্নত এই প্রাচীন মায়া সভ্যতার মানুষ গণিত, জ্যোতির্বিদ্যা, স্থাপত্যবিদ্যা সহ একাধিক বিষয়ে জ্ঞানী ছিল, অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দিন-তারিখের হিসেব লিপিবদ্ধ করা এই মায়া ক্যালেন্ডারের সাথে কোনো মিল নেই বর্তমান ক্যালেন্ডারের। কারণ সেই ক্যালেন্ডারে অক্ষর এবং সংখ্যা ছিল না, সেখানে ছিল হায়ারোগ্লিফিক চিত্র, ২০১২ তে সেই হিসেব না মেলায় থিয়োরিস্টরা নিজেদের হিসেবের একটি ত্রুটি সমাধান করে জানিয়েছেন আমরা বর্তমানে মায়া ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ২০১২ সালে আছি। গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারের ১১ দিনে এক দিন পরিবর্তন হয় মায়া ক্যালেন্ডারে, মায়া ক্যালেন্ডার ১৭৫২ থেকে শুরু,যার ফলে হিসেবটা অনেকটা এরকম ২৬৮*১১=২৯৪৮ দিন। ২৯৪৮/ ৩৬৫ = ৮ বছর।
অর্থাৎ ২০১২ + ৮ = ২০২০
তাই ২০২০ তে পৃথিবী ধ্বংসের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন তাঁরা। এখনো পর্যন্ত ২০২০ র ভয়াবহতার সাক্ষী সকলেই তাতে এই ২০২০ তে কি মায়া ক্যালেন্ডার অনুযায়ী পৃথিবী সত্যি ধ্বংস হবে, আশঙ্কায় আতঙ্কিত অনেকেই৷

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...