Home উৎসব শ্রীরামপুরে মা শ্মশান কালী কেনো জাগ্রত? পূরণ করেন তার ভক্তদের মনস্কামনা...

শ্রীরামপুরে মা শ্মশান কালী কেনো জাগ্রত? পূরণ করেন তার ভক্তদের মনস্কামনা…

১৬০ বছরের পুরনো শ্রীরামপুর শ্মশানকালী মন্দিরে নিষ্ঠা মেনে হয় পুজো, মনস্কামনা পূরণের আশায় দূর দুরান্ত থেকে লক্ষ লক্ষ ভক্তের সমাগম হয়

শ্মশান হল পবিত্র সেই স্থান যেখানে মৃত্যুর পর মানুষের দেহ দাহ করা হয়। পবিত্র এই স্থানে শ্মশান কালীমায়ের পুজো করা হয় যাতে দেহ বিলীন হয়ে যাওয়ার পরও মানুষ মায়ের কাছে আশ্রয় পান, মানুষের আত্মা শান্তি লাভ করে।



শ্রীরামপুরের মা শ্মশানকালী এমনই এক জাগ্রত মা৷ শ্রীরামপুরের শ্মশান ঘাটের পাশেই শ্মশান কালীর মায়ের মন্দির, যার পাশ দিয়েই বহমান গঙ্গা নদী, মায়ের পুজোয় লক্ষ লক্ষ মানুষের উপস্থিতি, মায়ের দর্শন লাভের আশায় এবং মনস্কামনা পূরণের ইচ্ছায় দূরদুরান্ত থেকে মানুষ এসে ভিড় জমায় মায়ের আশীর্বাদ লাভের জন্য | হুগলির মানুষ তো আছেই, এছাড়াও বহু দূর থেকেও অনেক ভক্ত আসেন মায়ের মন্দিরে।



সবত্রই মা শ্মশান কালী জাগ্রত তবে শ্রীরামপুরে মায়ের মন্দির ভীষণ বিখ্যাত। শ্রীরামপুরের শ্মশান কালী মায়ের পুজো এবং মন্দিরের পরিচালনার দায়িত্বে আছে ‘সর্বজনীন শ্মশান কালী পুজো কমিটি’। মায়ের পুজোয় সাহায্য করে
স্থানীয় ক্লাব সবুজ সংঘ, সৌরভ সংঘের সদস্যবৃন্দ।




শ্রীরামপুরে শ্মশান কালীর মন্দির প্রায় ১৬০ বছরের পুরোনো। প্রতিবছর নারকেল ফাটিয়ে শুরু হয় পূজোর আয়োজন। মায়ের বরণ হয় তিন ভাগে, পুজো শুরু হয় চন্ডীপুজোর মাধ্যমে।

মায়ের পুজোয় মনবাসনা পূরণের আকাঙ্ক্ষায় বহু ভক্তের সমাগম হয়। সকাল ৭ টা থেকে সন্ধ্যে ৭ টা পর্যন্ত আচার অনুষ্ঠান মেনে চলতে থাকে পুজোর নানা কাজকর্ম।
মন্দির কমিটির তরফে




পুজোর পর শ্মশানকালী মায়ের পুজোর ভোগ ভক্তদের ছাড়াও শ্রীরামপুর অয়ালস হাসপাতালে , শ্রীরামপুর টিবি হাসপাতালে , শ্রীরামপুর শ্রমজীবী হাসপাতালে এবং
চেসারস হোমে ,বিতরণ করা হয়।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...