Home ফিচার মৃত মেয়ের সাথে মায়ের দেখা করালো বিজ্ঞানীরা। কিন্তু কীভাবে হলো সম্ভব। অসুন...

মৃত মেয়ের সাথে মায়ের দেখা করালো বিজ্ঞানীরা। কিন্তু কীভাবে হলো সম্ভব। অসুন জেনে নিন….

মৃত মেয়ের সঙ্গে মায়ের কথোপকথনের ভিডিও প্রকাশে চাঞ্চল্য

দক্ষিণ কোরিয়ার তথ্যপ্রযু’ক্তিবিদরা এক মায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করালেন ছয় বছর আগে মৃত সন্তানের সঙ্গে৷ সেই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই কেউ আবেগপ্রবণ তো কেউ বিরোধিতা করেছেন এ ধরণের রিয়েলিটির।

আরব নিউজের খবরসূত্রে জানা যায় ২০১৬ সালে ছোট শিশু না-ইয়ন লিউকোমিয়ায় মা’রা যায়। সেই শি’শুটির সাথে ভা’র্চুয়াল বাস্তবতায় কথোপকথন করানো হয় তার মায়ের সঙ্গে।

ওই শিশুর মা ঝাং জি সাং মে’য়ের সঙ্গে কথা বলেন এবং আদরও করেন মেয়েকে ছুঁয়ে। মৃ’ত মেয়েকে দীর্ঘদিন পর দেখে চোখের জল থামে না ঝাং জি র।
ঝাং জি এর হাতে পরানো হয় স্পর্শকাতর গ্লাভস এবং চোখে লাগিয়ে দেওয়া হয় ভার্চুয়াল রিয়েলিটি বক্স। যার মাধ্যমে বাস্তবে নয় ভার্চুয়ালি মেয়ের দেখা পান, কথা বলেন এবং সেন্সরের মাধ্যমে নিজের মৃত কন্যাকে স্পর্শ করে আদর করেন ঝাং জি।

প্রযুক্তিবিদরা প্রথমে না-ইয়ান এর ছবি নিয়ে তৈরী করেন এনিমেশন, তারপর সেই এনিমেশনকে ভিআর বক্স ও সেন্সর হ্যান্ড গ্লাভসে যুক্ত করা হয়।
এই ভা’র্চুয়াল রিয়েলিটির ভিডিও প্রচারিত হয়
দক্ষিণ কোরিয়ার একটি টেলিভিশন চ্যানেলে। সেই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, ঝাং জি একটি গ্রিন স্ক্রিন কক্ষে ভিআর বক্স ও গ্লাভস পরে ডাকছেন তাঁর মৃত মেয়েকেI

মেয়েটি মা কে জিজ্ঞেস করে তার মা কোথায় ছিল, এবং জানায় মা কে তাঁর খুব মনে পড়ে। সে জানতে চায় তার মায়েরও তাঁর কথা মনে পড়ে কি না।
ছোট্ট মেয়ের কথায়র উত্তর দেওয়ার আগেই কেঁদে ফেলেন মা। এবং মেয়েকে বলেন মেয়ের কথা ভীষণ মনে পড়ে তাঁর।

দীর্ঘদিন পর মা মেয়ের এই ভা’র্চুয়াল সাক্ষাৎ এ প্রযুক্তিবিদরাও থামাতে পারেন না চোখের জল। তারাও কাঁদতে থাকেন।

তবে সমালোচকরা এই ঘটনাকে ভালো ভাবে নিচ্ছেন না। মানুষের আবেগ আর বিশ্বাস নিয়ে এটা একধরনের প্রতারণা বলেই মনে করছেন তারা। দক্ষিণ কোরিয়ার অনেকেই বিরোধিতা করেছেন এই রিয়েলিটির।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

মায়ের মৃত্যুদিনে পথ পশুদের কল্যাণার্থে পারমিতা মুন্সী ভট্টাচার্য এর পরিচালনায় হয়ে গেলো ‘বর্ষ বরণে বিবিয়ানা’

পথপশুদের কল্যাণার্থে শিবানী মুন্সী প্রোডাকশনের 'বর্ষবরণে বিবিয়ানা' শীর্ষক বাংলা নববর্ষের ক্যালেন্ডার প্রকাশ হয়ে গেল। এই ক্যালেন্ডার থেকে সংগৃহীত অর্থ খরচ করা হবে পথ পশুদের...

কি করলে আপনাকে বা আপনার পরিবারকে ছুঁতে পারবেনা করোনা

বর্তমানের ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে নিস্তার পাওয়াটাই এখন সকল মানুষের একমাত্র লক্ষ্য. কিন্তু কিভাবে পাবো এই ভয়ানক কোবিড ১৯ এর হাত থেকে মুক্তি? কোবিড ১৯ ভাইরাস...

অতিমারির মধ্যেও প্রকৃতির আরো কাছে ফিরে যাচ্ছেন জয়া আহসান..

করোনা নামক ভয়ঙ্কর ভাইরাস বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। সকলকে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। কিন্তু শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে তার কণ্ঠে বিষন্নতা রয়েছে। চারিদিকে...

চারিদিকে অক্সিজেনের হাহাকার, এই পরিস্থিতিতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন টলি তারকারা…

গোটা বিশ্ব আজ করোনা মহামারীর কবলে। Covid এর দ্বিতীয় ঢেউ তে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ সাথে মৃত্যু। করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে এই প্রথম দৈনিক সংক্রমণ বেড়ে...