Home সাক্ষাৎকার "এক নারী পুড়ে হয় আরেক নারীর সৃষ্টি" সাক্ষাৎকারে পায়েল সরকার..

“এক নারী পুড়ে হয় আরেক নারীর সৃষ্টি” সাক্ষাৎকারে পায়েল সরকার..

অজস্র সিরিয়ালে অভিনয়। “ভালোবাসা. কম“, “টাপুর টুপুর“, “গুরু দক্ষিণা”, “বেনে বউ”, “তুমি রবে নীরবে”, “সাত ভাই চম্পা”, “অদ্ভুতুড়ে”, ওম নম শিবায়”, “কুন্দ ফুলের মালা”, “অন্দরমহল”, “নেতাজী” “এখানে আকাশ নীল”, “ভানুমতির খেল”, “ভক্তের ভগবান শ্রী কৃষ্ণ” এর মত এক ঝাঁক সিরিয়ালে যার অভিনয় আমাদের সকলের মনে জায়গা করে নিয়েছে। আজকে আমাদের আড্ডায় সেই টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পায়েল সরকারের মুখোমুখি আমি সুস্মিতা

প্রশ্ন: তোমার অভিনয় জগতে আসা কিভাবে?

পায়েল: অভিনয় জগতে আসা আমার হঠাৎ করেই। আসলে আমার বাড়ির সবার ইচ্ছা ছিল আমি নিউজ অ্যাঙ্কর হবো যেমন মৌপ্রিয়া দি, সঞ্চিতা দি, পিউ দি এনাদের মতো T.V সামনে বসে নিউজ রিডিং করবো। তো সেই জন্য আমি National Institute of Technical Study এই ইনস্টিটিউশনে যাই কোর্স করতে সেখানে বিভিন্ন প্রোডাকশন হাউস থেকে লোক আসতো গ্রুমিংয়ের জন্য,

তো হঠাৎই আমাকে ব্লুস প্রোডাকশন হাউস-এ ডাকা হয় আমি যাই এবং আমাকে কাস্ট করেন স্নেহাশিস চক্রবর্তী “ভালোবাসা.কম” “চিনি” চরিত্রের জন্য। এইভাবেই আমার প্রথম অভিনয় জগতে আসা। এরপর “বেনে বউ“, “আঁচল“, “টাপুর টুপুর“, “তুমি রবে নীরবে” পথ চলা শুরুI

প্রশ্ন: জীবনের কঠিন পরিস্থিতি গুলোয় নিজেকে Motivate করো কি ভাবে?

পায়েল: জীবনে কঠিন পরিস্থিতিতে আমি আমার ঠাম্মার কথা ভাবি, তিনি আজ আমাদের মধ্যে নেই কিন্তু আমার মনে হয় তিনি সব সময় আমার কাছে আছেন, আমার পাশে আছেন। আর আমার হাসব্যান্ড “সহেল“, আমি যখন সহেলের হাত ধরি তখন মনে হয় আমি ঠাম্মার হাত ধরে আছি। আর তাছাড়া সহেল আমার কাছে ভগবান তুল্য, ভগবানকে তো চোখে দেখা যায় না কিন্তু তিনি এমন একজনকে পাঠান যে সবসময় পাশে থাকবে তো সহেল আমার জীবনে সেই ভগবান। আমার জীবনে জটিল পরিস্তিতি আসার আগেই সহেল সেটাকে সামলে নেয়, আমাকে সেই পরিস্তিতির মধ্যে পড়তে দেয় না। আর আমার ঠাম্মা একটা কথা বলতেন সেটা হলো “be positive, stay positive, think positive” এই তিনটি জিনিসকে তুমি যদি তোমার চলার পাথেয় করতে পারো তাহলে তুমি যেকোনো পরিস্তিতি কাটিয়ে উঠতে পারবে।

প্রশ্ন: তোমার এগিয়ে চলার পথে কোন কোন মানুষের অবদান আছে বলে তুমি মনে করো?

পায়েল: সব থেকে বড় অবদান অবশ্যই আমার পরিবারের। আর আমি লোকনাথ বাবাকে খুব বিশ্বাস করি তাই লোকনাথ বাবার আশির্বাদ নিয়ে সব কাজ শুরু করি। আর যার কথা না বললেই নয় সে হলো সহেল ❤️। এই মানুষ গুলোর অবদান আমার জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

প্রশ্ন: অভিনয় বাদে অবসর সময়ে কি করতে ভালোবাসো?

পায়েল: আমি ভীষণ লিখতে পছন্দ করি। এই লকডাউনে আমার লেখা একটা উপন্যাস রিলিজ করেছে “বাস্তব”। এছাড়া আমি অভিনয়ের পাশাপাশি নাচ করতে ভীষণ ভালোবাসি। ক্লাসিক্যাল ড্যান্সের কোর্স আমার পুরো করা, গান শিখেছি কিন্তু কবে হারমোনিয়াম ধরেছি ভুলে গেছি😔, তবে গান করিও মাঝে মাঝে, গান শুনি, গার্ডেনিং করি, Drive করি, আর সহেলের সাথে আড্ডা মারা এই করেই কেটে যায়।

প্রশ্ন: কিছুদিন আগে তোমার লেখা একটা উপন্যাস রিলিজ হয়েছে “বাস্তব” সেই ব্যাপারে কিছু বলো

পায়েল: হ্যাঁ “বাস্তব” আমার ঠাম্মির জীবনের সাথে অতপ্রত ভাবে জড়িত। মৃত্যুর পর আমাদের সাথে কি হয় আমরা কিন্তু কেউ জানি না, আমরা জানি মৃত্যুর পর আমাদের জীবনের শেষ, কিন্তু না। মৃত্যুর পর কি হচ্ছে? কি ভাবে পাঁচটা তত্ত্ব প্রকৃতির মধ্যে বিলীন হচ্ছে, সেই ব্যাপারটাকে আমি “বাস্তবের” মাধ্যমে তুলে ধরেছি। এই inspiration টা আমার ঠাম্মার থেকে পাওয়া, মৃত্যুর পর কি হয় এরকম ছোটো ছোট ঘটনা আমি ঠাম্মার কাছে গল্প শুনেছি এবং তার ওপর ভিত্তি করেই লেখা “বাস্তব“।

https://www.boichoi.com/Bastab-WantedReality2020

প্রশ্ন: তোমার চলার পথে তুমি তোমার Husband এর থেকে কতটা সাপোর্ট পাও?

পায়েল: এটা আমি বলে বোঝাতে পারবো না। সত্যি বলতে সহেল ছাড়া আমি একপাও চলতে পারবো না এতটাই আমি ওর ওপর ভরসা করি। “বাস্তব” শুধু আমি লিখেছি বাকি সব কিছু মানে “বাস্তবের” ক্যাপশন (“এক নারী পুড়ে হয় আরেক নারীর সৃষ্টি“), বাস্তবের ফ্রন্ট কভার, ব্যাক কভার, সেখানে যে আমার হাফ মুখ, আমার ঠাম্মার হাফ মুখ থাকবে, সেটা যে হাতে স্কেচ হবে সব কিছুর পিছনে আছে সহেল। ওই আমাকে বলে তুমি লেখো। আর যেটা না বললেই নয় “আমি আমার ঠাম্মাকে যদি মনে রাখি, সহেল আমার ঠাম্মাকে মনের মণিকোঠায় জায়গা দিয়েছে”। এটা infatuation কি না জানি না কিন্তু আমার ঠাম্মা শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন ব্যাঙ্গালোরে, আর সহেলও ব্যাঙ্গালোর থেকেI তো আমার মনে হয় ঠাম্মাই সহেলকে আমার জীবনে পাঠিয়েছেন।

প্রশ্ন: তোমার কি মনে হয় এই লকডাউন তোমাদের মত শিল্পীদের জীবনে কতটা প্রভাব ফেলেছে?

পায়েল: দেখো সবকিছুর ভালো এবং খারাপ দুটো দিকই আছে। আমি বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে আছি, কন্ট্রাক্ট-এ আছি সেখানে আমি মাস গেলে একটা মাইনে পাবো, কিন্তু এই পরিস্থিতিতে অনেকের কন্ট্রাক্ট বেক হয়েছে তেমনই সাধারণ মানুষ যারা খেটে খায় তাদেরও অনেক ক্ষতি হয়েছে। তো সেক্ষেত্রে আমি শিল্পী বলে শুধু শিল্পীদের হাইলাইটেড করবো তা নয় আমি প্রত্যেকটা খেটে খাওয়া মানুষদের জন্যও আমি ভাবি। হ্যাঁ আশা রাখি এই পরিস্থিতিটা আমরা সবাই মিলে কাটিয়ে উঠবো।

প্রশ্ন: সবশেষে তুমি তোমার ফ্যান ও দর্শকদের উদ্দেশ্যে কি বলতে চাও?

পায়েল: আমি এটাই বলবো সবাই যেনো সেফ থাকে, স্যানিটাইজার, মাস্ক অবশ্যই ব্যবহার করুন। সাথে সামাজিক দূরত্বটাও বজায় রাখুন, ভিড় এড়িয়ে চলুন। আর এই পরিস্থিতিতে নিজেদের মানবিকতাটা হারিয়ে ফেলবেন না, যদি দেখেন কেউ বিপদে আছে তাকে নিজেদের সামর্থ্য মত সাহায্য করুন তাদের পাশে থাকুন।

সবশেষে আমি একটা কথা বলতে চাই আমার একটা সংস্থা আছে “পরিচয়” (পরিচয় রিলিফ ফান্ড)। এখানে শুধু বাচ্চাদের নিয়ে না, যারা অত্যাচারের শিকার তাদের নিয়ে, বৃদ্ধ- বৃদ্ধা সকলকে নিয়ে আমার “পরিচয়”। যারা পরিচয় কাজ করতে চাও তারা অবশ্যই এই নাম্বারে যোগাযোগ করো- +91 89109 42514 

সবশেষে এবিও পত্রিকা পক্ষ থেকে পায়েল কে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ। তার মহামূল্যবান সময় থেকে আমাদের কিছুটা সময় দেওয়ার জন্য।
আমাদের তরফ থেকে তোমার আগামী দিনের জন্য অনেক শুভেচ্ছা রইল। তুমি ও তোমার পরিবারের সকলে ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, এবং সুরক্ষিত থাকুন এই কামনাই করিI

আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন: https://facebook.com/abopatrika/

- Advertisment -

জনপ্রিয়

মুক্তি পেলো অভিজিৎ চৌধুরী ও প্রকাশ শিকদার পরিচালিত স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি “শিউলি”…

এই পুজোয় মুক্তি পেলো জয় রায় এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি 'শিউলি'। ছবিটি পরিচালনা করেছেন অভিজিৎ চৌধুরী ও প্রকাশ শিকদার। পরিচালক তাদের এই স্বল্প দৈর্ঘ্যের...

কলকাতা শহরের গল্প নিয়ে আসছে পাভেল এর নতুন ছবি “কলকাতা চলন্তিকা”…

কলকাতা শহরের গল্প নিয়ে আসতে চলেছে পাভেল পরিচালিত নতুন ছবি "কলকাতা চলন্তিকা"। এর আগে পাভেল পরিচালিত 'বাবার নাম গান্ধীজী', 'রসগোল্লা', 'অসুর'-এর মতো ছবি সিনেমাপ্রেমীদের মন...

লাল চোখে কুটিল হাসি “রাবণ” অবতারে ছবি পোস্ট করে চমকে দিলেন অভিনেতা জিৎ…

ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠেছে বিনোদন জগৎ। এই দুৃর্গাপুজোতে মুক্তি পেয়েছে জিৎ-এর দক্ষিণী ছবি ‘নান্নাকু প্রেমাথু’র অফিশিয়াল রিমেক ‘বাজি’। এই ছবিতে জিতের বিপরীতে অভিনয়...

মুক্তি পেলো Asheq Manzur প্রযোজিত এবং Arup Sengupta পরিচালিত মিউজিক ভিডিও “অনুভবে” টিজার…

3p প্রোডাকশনের পক্ষ থেকে এবং Arup Sengupta-র পরিচালনায় ২০ অক্টোবর মুক্তি পেতে চলেছে "অনুভবে" মিউজিক ভিডিওটি. সম্প্রতি মুক্তি পেলো "অনুভবে" মিউজিক ভিডিওটির টিজার. বাংলাদেশ...