Home ধর্মীয় এবারে মহালয়ার ৩৫ দিন পর দুর্গাপুজো। কোন বছর আবার এরম হবে?

এবারে মহালয়ার ৩৫ দিন পর দুর্গাপুজো। কোন বছর আবার এরম হবে?

এবছরের মতোই আবার ২০৩৯ সালে মলমাসের কারণে মহালয়ার একমাস পরে হবে দুর্গাপুজো
মহালয়া মানেই পুজো শুরু হয়ে গেল,তবে প্রতিবারের থেকে এবছরটা একটু আলাদা। মহালয়ার ৩৫ দিন পরে দুর্গা পুজো।

প্রতিবছর আশ্বিন মাসে মা দুর্গা সন্তানদের নিয়ে তিনদিনের জন্য আসেন মর্ত্যলোকে।
পুজোর কটা দিন প্রাণের উৎসবে মেতে ওঠে বাঙালিরা। সমস্ত রকম আয়োজনের প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায় বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই, দশমী থেকে শুরু হয়ে যায় পরের বছর দেবীর আগমনের প্রতীক্ষা।
আবার প্রতিবারই মহালয়ার ভোরে শুরু হয়ে যায় মহামায়ার আগমনের আমেজ।



তবে এবার দেবীর আগমনের জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে অনেক বেশি। পুজো এসেও যেন আসছে না।
তবে এবছর মহালয়ার পর কেন ৩৫ দিন অপেক্ষা করতে হবে দেবীর আগমনের জন্য জেনে নিন,

এর কারণ হল এবছর একই মাসে দুবার অমাবস্যা থাকায় আশ্বিন মাস মলমাস। মহালয়ার পরের দিন শুক্লা প্রতিপদে এবছর দেবীপক্ষ শুরু হচ্ছে না, কারণ ঐদিন থাকছে আশ্বিন মাসের প্রথম অমাবস্যা, আর আশ্বিন মাসের শেষ অমাবস্যা হচ্ছে ৩০ শে আশ্বিন, ১৬ ই অক্টোবর। আর অমাবস্যা তিথির শেষ হওয়ার পরেই শুরু হবে দেবীপক্ষ।



চন্দ্র মাস হয় ২৮ দিনে এবং সৌর মাস হয় ৩০ দিনে,
চন্দ্রমাস এবং সৌরমাসের নিয়মে প্রতি ২৮ থেকে ৩৫ মাসের ব্যবধানে মলমাস হয়।
মলমাস একই মাসে ফিরে ফিরে আসে প্রত্যেক ১৯ বছর অন্তর।



২০০১ সালেও মলমাস পড়েছিল আশ্বিন মাসে, আবার তার আগে ১৯৮২ সালে হয়েছিল মলমাস, আর প্রত্যেকবারই মলমাসের কারণে মহালয়া থেকে একমাসের বেশি সময় পর হয়েছিল দুর্গা পুজো।
আবার ১৯ বছর পর অর্থাৎ ২০৩৯ সালে আশ্বিস মাসে এই নিয়ম অনুসারে মলমাস থাকবে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...