Home সোশাল মিডিয়া টয়লেট থেকে আনা জল ভরে ফুচকায় দিল দোকানদার,ঘটনা প্রকাশ্যে আসতে দোকান ভেঙে...

টয়লেট থেকে আনা জল ভরে ফুচকায় দিল দোকানদার,ঘটনা প্রকাশ্যে আসতে দোকান ভেঙে দিল উত্তপ্ত জনতা

করোনার কালবেলায় লকডাউনে একটা জিনিস বেশিরভাগ খাদ্যপ্রেমীরাই মিস করছেন যা হল ফুচকা, দীর্ঘদিন পর আবার পাড়ার মোড়ে কিংবা রাস্তায় ফুচকা দেখে অনেকেই করোনা ভাইরাসকে ভুলে খেয়ে নিয়েছেন ফুচকা। কেউ সতর্কতা অবলম্বন করে বিক্রি করছেন তো কেউ হাত না ধুয়ে,



স্যানিটাইজার ব্যবহার না করেই দিচ্ছে আর আপনিও খাচ্ছেন। রাস্তার ধারে এভাবে ফুচকা খেলে অনেক সময় বিপদ হতে পারে৷ আর এবার এমনই এক ঘটনা উঠে আসল যেখানে করোনার বিধিনিষেধ পালনের না বিক্রি হচ্ছিল স্পেশ্যাল ফুচকা, মুম্বইয়ের সেই পানিপুরিতে মেশানো হয়েছে টয়লেটের জল। আর এই ঘটনাটি সকলের সামনে আসতেই ক্ষুব্ধ জনতা ভেঙে ফেলেছেন সেই ফুচকার দোকান।
ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ের কোলহাপুরে যেখানে মুম্বইয়ের স্পেশ্যাল পানিপুরির দোকানে ফুচকায় মেশানো হয়েছে টয়লেট থেকে আনা জল।



ক্যামেরায় এই দৃশ্য ধরা পড়ে যাওয়ায় বিক্ষোভে ভেটে পড়েন ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা, তারা দোকানে ভাঙচুর চালান। ফুচকার দোকানের মালিক পাশের একটি পাবলিক টয়লেট থেকে আনা জল ফুচকায় মেশান তার তা প্রকাশ্যে আসতেই দোকান ভেঙে ক্ষুব্ধ জনতারা ভেঙে দেন ফুচকার দোকান, ফেলে দেন ফুচকা।




তবে এটাই প্রথম নয় এর আগে মুম্বইতে একটি ফুচকার দোকানে ফুচকার মধ্যে পটি ভাসতে দেখা গেছিল, তার পর উত্তেজনা ছড়িয়েছিল এলাকায়।
মহারাষ্ট্রের বারবার এই ধরনের ঘটনা চোখে আঙুল তুলে দেখাচ্ছে যে কতটা বিপদজনক এই সব খাওয়া, বিশেষ করে করোনাকালীন পরিবেশে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...