Home দেশ চা বিক্রেতার মেয়ে এখন এয়ারফোর্সের ফাইটার পাইলট

চা বিক্রেতার মেয়ে এখন এয়ারফোর্সের ফাইটার পাইলট

স্বপ্নপূরণের পথে বাঁধা সবসমই আসে, কিন্তু সেইসব বাঁধা কাটিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছতে পারে খুব কম জনই, কেউ হার মেনে যায় অর্থকষ্টে, তো কেউ ব্যর্থতার কাছে, তবে কিশোরী আঁচল গঙ্গওয়াল অটল ছিল তার লক্ষ্যে এবং অবশেষে তার স্বপ্ন পূরণও হয়, দারিদ্র্যতার কাছে হার না মেনে বায়ুসেনার পাইলট হয়েছে ভোপালের ৪০০ কিমি দূরে নীমচ শহরের বাসিন্দা আঁচল।

সালটা ২০১৩, টিভির পর্দায় কেদারনাথ দেখে আঁচল গঙ্গওয়াল স্বপ্ন দেখে বায়ুসেনার পাইলট হওয়ার। কিন্তু অনেকেই মনে করেন, যাদের টাকা নেই তাদের স্বপ্ন দেখার অধিকারও নেই, আঁচলের বাবা একজন
চায়ের দোকান চালায়, তাই তার এমন স্বপ্ন যে অবাস্তব, অপূরনীয় এমনটা বলেছিল অনেকেই, অনেকে আবার চাওয়ালার মেয়ের এমন স্বপ্ন নিয়ে বিদ্রুপও করে।

দক্ষ বাস্কেটবল খেলোয়াড় আঁচল পড়াশোনাতেও ছিল মেধাবী । তবে তাঁর এই স্বপ্নে প্রথমে তার পরিবারও সায় দেয়নি কিন্তু পরে তারা হার মানতে বাধ্য হয় আঁচলের স্বপ্নের কাছে।

মেয়ের স্কুলের বেতন জোগাড় করতে নানা সমস্যায় পড়তেন তার বাবা সুরেশ গঙ্গোয়ালের। একসময় চাওয়ালা নামে পরিচিত সুরেশ গঙ্গোয়াল এখন খ্যাত ‘এয়ারফোর্সের ফাইটার পাইলটের ‘ বাবা নামে।
তবে মেয়ের অনড় ইচ্ছার জন্য বাবা মায়ের ভূমিকাও কম ছিল না, মেয়ের পড়াশোনার খরচের জন্য কখনো হাত পাততে হয়েছে আত্মীয় পরিজনদের কাছে। আবার কখনও স্কুল-কলেজের বেতন নির্ধারিত সময়ে জমা দিতে না পারায় দিতে হয়েছে একাধিক অজুহাত। স্কুল এবং কলেজ পাশ করার পর ফাইটার পাইলট হওয়ার প্রবেশিকা পরীক্ষায় একাধিক বার ব্যর্থ হয় আঁচল। তবে হাল ছাড়েনি, পরিবারের আশা, নিজের স্বপ্ন কে পূরণ করতে ব্যর্থতাকে সাফল্যে রুপান্তরিত করতে দীর্ঘ সময় লাইব্রেরিতে থাকতে হত, সাফল্য আসে ষষ্ঠ প্রচেষ্টায়। যষ্ঠবার ভারতীয় বায়ুসেনার ফাইটার পাইলট হওয়ার পরীক্ষায় প্রতি ধাপে উত্তীর্ণ হওয়ার পর প্রশিক্ষণ পর্বেও সফল হয়ে ২৪ বছর বয়সী আঁচল গঙ্গওয়াল ফ্লাইং অফিসার হিসেবে সম্প্রতি যোগ দিয়েছেন ভারতী বায়ুসেনায়।
মেয়ের স্বপ্নপূরণে ভীষণ খুশি
আঁচলের বাবা মা।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

শুরু হয়ে গেলো দেব রুক্মিনীর ভালোবাসার নতুন সফর! “কিশমিশ”-এর শুভ মহরত…

বড়ো পর্দায় চ্যাম্প, কিডন্যাপ, ককপিট, কবীর, পাসওয়ার্ড এর মতো ছবিতে একসঙ্গে দেখা মিলেছে দেব রুক্মিণী জুটির. এবার ষষ্ঠ বার সিলভার স্ক্রিনে জুটি বাঁধতে চলেছেন...

ঘুম থেকে উঠে মানুন কিছু ছোট্ট টোটকা….

ফর্সা হতে চান! ঘুম থেকে উঠে মানুন কিছু ছোট্ট টোটকা এখন কেবল নারীরা নয়, পুরুষরাও নিজেকে সভান সুন্দর ও আকর্ষনীয় দেখাতে আগ্রহী। নিজেকে ফর্সা ও...

অতনু ঘোষের ছবি ‘শেষ পাতায়’ থাকছেন প্রসেনজিৎ-গার্গী-বিক্রম…

এই অতিমারীর পরিস্তিতি স্বাভাবিক হলেই ছন্দে ফিরবে টলিউড ইন্ডাস্ট্রি. পরবর্তী ছবির ঘোষণা করলেন পরিচালক অতনু ঘোষ. 'ময়ূরাক্ষী', 'রবিবার' এর পর অতনু ঘোষের "শেষ পাতা"...

অঙ্গ দান করলেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার…

এই করোনা পরিস্তিতিতে আগের বছর থেকেই বিভিন্ন অভিনেতা অভিনেত্রীদের দেখা গেছে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে. কিন্তু এবার এক অভিনব প্রয়াস অঙ্গ দান করতে এগিয়ে...