Home জেলার খবর ৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজ ‘গ্রিন কলেজ’ উপাধি পেতে...

৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজ ‘গ্রিন কলেজ’ উপাধি পেতে চলেছে…

৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজের
অল্ডিন হাউজ বর্তমানে ধ্বংসস্তূপে পরিনত

১৮১৮ সালে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজের বয়স দ্বিশতবর্ষেরও বেশি। শ্রীরামপুর কলেজ শুরু হয়েছিল ১৮১৮ সালে ৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে, শহরের জলকল এলাকায় জনৈক রেভারেন্ড অল্ডিন সাহেবের বাড়িতে। তার চার বছর পর ১৮২২ সালে শ্রীরামপুর কলেজ স্থানান্তরিত হয় বর্তমান ভবনে।



তবে কলেজ শুরুর পথচলা যেই অল্ডিন হাউজে বর্তমানে তা ধ্বংসস্তূপে পরিনত । কলেজের দ্বিশতবর্ষের আলো পৌছায় না সেখানে, চারিদিকে ঘন জঙ্গল, সাপের বাসা ছড়িয়ে আছে সেই স্থানে।

তবে ২০১৮ সালে কলেজের দ্বিশতবর্ষ উপলক্ষে পুরনো ভবনের সংস্কারের দাবি তোলা হয়।



শ্রীরামপুর কলেজের অন্যতম তিনজন প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন উইলিয়াম কেরি, জ্যোশুয়া মার্শম্যান ও উইলিয়াম ওয়ার্ড
উইলিয়াম কেরির কথা সকলের জানলেও জ্যোশুয়া মার্শম্যানউইলিয়াম ওয়ার্ড র কথা প্রচারিত হয়নি তেমনভাবে, তাই তাঁদের প্রতিকৃতি স্থাপনের দাবিও তোলা হয়েছিল সেই সভায়।

শহরের মানুষ থেকে শিক্ষাব্রতী সকলেই চায় বিভিন্ন বিষয়ের উপর পুরোপুরিভাবে স্নাতকোত্তর শিক্ষাক্রম শ্রীরামপুর কলেজে শুরু হোক। সেই সময় ক্যাম্পাসের পরিসর বৃদ্ধির জন্য আবেদনের প্রস্তাবও রাখা হয়।



শ্রীরামপুর কলেজ এর পাশাপাশি উঠে আসে
শ্রীরামপুর মিশন প্রেস এর কথা। হরফ শিল্পে যেই শহর বিপ্লব শুরু হয়েছিল তার প্রথম উদ্যোগ শ্রীরামপুরেই। পঞ্চানন কর্মকার এবং তাঁর উত্তরসূরিরা শ্রীরামপুরের হরফশিল্পকে এক অন্য মাত্রা দিয়েছিল।



শ্রীরামপুর কলেজ কে ‘গ্রিন কলেজ’ তৈরির জন্য একাধিক পরিকল্পনা নিয়ে সেই অনুযায়ী কাজও চলছে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...