Home জেলার খবর ৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজ ‘গ্রিন কলেজ’ উপাধি পেতে...

৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজ ‘গ্রিন কলেজ’ উপাধি পেতে চলেছে…

৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজের
অল্ডিন হাউজ বর্তমানে ধ্বংসস্তূপে পরিনত

১৮১৮ সালে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজের বয়স দ্বিশতবর্ষেরও বেশি। শ্রীরামপুর কলেজ শুরু হয়েছিল ১৮১৮ সালে ৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে, শহরের জলকল এলাকায় জনৈক রেভারেন্ড অল্ডিন সাহেবের বাড়িতে। তার চার বছর পর ১৮২২ সালে শ্রীরামপুর কলেজ স্থানান্তরিত হয় বর্তমান ভবনে।



তবে কলেজ শুরুর পথচলা যেই অল্ডিন হাউজে বর্তমানে তা ধ্বংসস্তূপে পরিনত । কলেজের দ্বিশতবর্ষের আলো পৌছায় না সেখানে, চারিদিকে ঘন জঙ্গল, সাপের বাসা ছড়িয়ে আছে সেই স্থানে।

তবে ২০১৮ সালে কলেজের দ্বিশতবর্ষ উপলক্ষে পুরনো ভবনের সংস্কারের দাবি তোলা হয়।



শ্রীরামপুর কলেজের অন্যতম তিনজন প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন উইলিয়াম কেরি, জ্যোশুয়া মার্শম্যান ও উইলিয়াম ওয়ার্ড
উইলিয়াম কেরির কথা সকলের জানলেও জ্যোশুয়া মার্শম্যানউইলিয়াম ওয়ার্ড র কথা প্রচারিত হয়নি তেমনভাবে, তাই তাঁদের প্রতিকৃতি স্থাপনের দাবিও তোলা হয়েছিল সেই সভায়।

শহরের মানুষ থেকে শিক্ষাব্রতী সকলেই চায় বিভিন্ন বিষয়ের উপর পুরোপুরিভাবে স্নাতকোত্তর শিক্ষাক্রম শ্রীরামপুর কলেজে শুরু হোক। সেই সময় ক্যাম্পাসের পরিসর বৃদ্ধির জন্য আবেদনের প্রস্তাবও রাখা হয়।



শ্রীরামপুর কলেজ এর পাশাপাশি উঠে আসে
শ্রীরামপুর মিশন প্রেস এর কথা। হরফ শিল্পে যেই শহর বিপ্লব শুরু হয়েছিল তার প্রথম উদ্যোগ শ্রীরামপুরেই। পঞ্চানন কর্মকার এবং তাঁর উত্তরসূরিরা শ্রীরামপুরের হরফশিল্পকে এক অন্য মাত্রা দিয়েছিল।



শ্রীরামপুর কলেজ কে ‘গ্রিন কলেজ’ তৈরির জন্য একাধিক পরিকল্পনা নিয়ে সেই অনুযায়ী কাজও চলছে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

লাল চোখে কুটিল হাসি “রাবণ” অবতারে ছবি পোস্ট করে চমকে দিলেন অভিনেতা জিৎ…

ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠেছে বিনোদন জগৎ। এই দুৃর্গাপুজোতে মুক্তি পেয়েছে জিৎ-এর দক্ষিণী ছবি ‘নান্নাকু প্রেমাথু’র অফিশিয়াল রিমেক ‘বাজি’। এই ছবিতে জিতের বিপরীতে অভিনয়...

মুক্তি পেলো Asheq Manzur প্রযোজিত এবং Arup Sengupta পরিচালিত মিউজিক ভিডিও “অনুভবে” টিজার…

3p প্রোডাকশনের পক্ষ থেকে এবং Arup Sengupta-র পরিচালনায় ২০ অক্টোবর মুক্তি পেতে চলেছে "অনুভবে" মিউজিক ভিডিওটি. সম্প্রতি মুক্তি পেলো "অনুভবে" মিউজিক ভিডিওটির টিজার. বাংলাদেশ...

মুক্তি পেলো DEZINIAX STUDIOS -এর প্রযোজনায় স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি “হুলো & মেনি”…

বাঙালীর শ্রেষ্ঠ উৎসব দূর্গা পুজো. আর দূর্গা পুজোয় প্রেম হবে না তা কি হয়. এবার পুজোয় তবে "হুলো আর মেনির প্রেম হয়ে যাক? অবাক...

পুজোর মরশুমে ‘মনের মানুষ’ দেবতনু রাজ করতে চলেছে সকলের “হৃদ মাঝারে”!

বর্তমানে পরিস্তিতি উদ্বেগ জনক হলেও বাঙালীরা ৩৬৫ দিন অপেক্ষা করে থাকে এই ৪টি দিনের জন্য। উমা ঘরে আসার সাথে সাথে চারিদিক খুশির আমেজে ভরে...