Home জেলার খবর ৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজ ‘গ্রিন কলেজ’ উপাধি পেতে...

৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজ ‘গ্রিন কলেজ’ উপাধি পেতে চলেছে…

৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজের
অল্ডিন হাউজ বর্তমানে ধ্বংসস্তূপে পরিনত

১৮১৮ সালে শুরু হওয়া শ্রীরামপুর কলেজের বয়স দ্বিশতবর্ষেরও বেশি। শ্রীরামপুর কলেজ শুরু হয়েছিল ১৮১৮ সালে ৩৭ জন পড়ুয়াকে নিয়ে, শহরের জলকল এলাকায় জনৈক রেভারেন্ড অল্ডিন সাহেবের বাড়িতে। তার চার বছর পর ১৮২২ সালে শ্রীরামপুর কলেজ স্থানান্তরিত হয় বর্তমান ভবনে।



তবে কলেজ শুরুর পথচলা যেই অল্ডিন হাউজে বর্তমানে তা ধ্বংসস্তূপে পরিনত । কলেজের দ্বিশতবর্ষের আলো পৌছায় না সেখানে, চারিদিকে ঘন জঙ্গল, সাপের বাসা ছড়িয়ে আছে সেই স্থানে।

তবে ২০১৮ সালে কলেজের দ্বিশতবর্ষ উপলক্ষে পুরনো ভবনের সংস্কারের দাবি তোলা হয়।



শ্রীরামপুর কলেজের অন্যতম তিনজন প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন উইলিয়াম কেরি, জ্যোশুয়া মার্শম্যান ও উইলিয়াম ওয়ার্ড
উইলিয়াম কেরির কথা সকলের জানলেও জ্যোশুয়া মার্শম্যানউইলিয়াম ওয়ার্ড র কথা প্রচারিত হয়নি তেমনভাবে, তাই তাঁদের প্রতিকৃতি স্থাপনের দাবিও তোলা হয়েছিল সেই সভায়।

শহরের মানুষ থেকে শিক্ষাব্রতী সকলেই চায় বিভিন্ন বিষয়ের উপর পুরোপুরিভাবে স্নাতকোত্তর শিক্ষাক্রম শ্রীরামপুর কলেজে শুরু হোক। সেই সময় ক্যাম্পাসের পরিসর বৃদ্ধির জন্য আবেদনের প্রস্তাবও রাখা হয়।



শ্রীরামপুর কলেজ এর পাশাপাশি উঠে আসে
শ্রীরামপুর মিশন প্রেস এর কথা। হরফ শিল্পে যেই শহর বিপ্লব শুরু হয়েছিল তার প্রথম উদ্যোগ শ্রীরামপুরেই। পঞ্চানন কর্মকার এবং তাঁর উত্তরসূরিরা শ্রীরামপুরের হরফশিল্পকে এক অন্য মাত্রা দিয়েছিল।



শ্রীরামপুর কলেজ কে ‘গ্রিন কলেজ’ তৈরির জন্য একাধিক পরিকল্পনা নিয়ে সেই অনুযায়ী কাজও চলছে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সায়ন্তন ঘোষাল পরিচালিত ওয়েব সিরিজ “গোরা-য়” এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় ‘পায়েল দে’….

আবারও ওয়েব সিরিজ-এ অভিনেত্রী পায়েল দে। হইচই এর ওয়েব সিরিজ ইন্দু দিয়েই গত বছরেই ওয়েব সিরিজের দুনিয়াতে পথ চলা শুরু হয়েছিল অভিনেত্রী পায়েল দে-র।...

বেস্ট শর্ট-ফিল্মের পুরস্কার জিতে নিলো অরূপ সেনগুপ্ত পরিচালিত শর্ট-ফিল্ম ‘চার এক্কে প্যাঁচ’

বছর শেষ হতে হাতে গোনা আর কয়েকটা দিন বাকি। চারিদিকে চলছে খুশির আমেজ. গত ২ বছরের পরিস্তিতি কাটিয়ে সাধারণ মানুষ আবার সিনেমা হলমুখী হচ্ছে।...

নতুন প্রজন্মের পরিচালকদের অনুপ্রাণিত করার জন্য আয়োজন করা হলো ভার্চুয়াল চলচ্চিত্র উৎসব

বিশ্বে বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে থাকা নতুন প্রজন্মের চলচ্চিত্র পরিচালকদের অনুপ্রাণিত করার জন্য আয়োজন করা হলো ভার্চুয়াল চলচ্চিত্র উৎসব মাই সিনেমা গ্লোবাল চলচ্চিত্র উৎসব। দ্বিতীয়...

মায়া এন্টারটেইনমেন্ট এর ব্যানারে মুক্তি পেতে চলেছে নতুন মিউজিক ভিডিও ‘ভুল না পায়ে’…

রাত পোহালেই বড়দিন। আর এই বড়দিনেই চন্দ্রানী দাসের প্রযোজনায় এবং মায়া এন্টারটেইনমেন্ট এর ব্যানারে মুক্তি পেতে চলেছে নতুন মিউজিক ভিডিও 'ভুল না পায়ে'। এই...