Home জেলার খবর দ্বিতীয় দিনেই মারাত্মক ভিড় দেখা গেল শেওড়াফুলি লোকালে...

দ্বিতীয় দিনেই মারাত্মক ভিড় দেখা গেল শেওড়াফুলি লোকালে…

দ্বিতীয় দিনেই মারাত্মক ভিড় দেখা গেল শেওড়াফুলি লোকালে, ট্রেনের সংখ্যা না বাড়ালে ভিড় এমনই হবে,বক্তব্য নিত্যযাত্রীদের



গতকাল দীর্ঘ সাড়ে সাত মাস পর শুরু হয়েছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। গতকাল বেলা বাড়ার সাথে সাথেই ভিড় বাড়ছিল এবং কমছিল বিধি মেনে ট্রেন ওঠা। আজ দ্বিতীয় দিনে সেই ভিড় আরও বেড়েছে সন্দেহ নেই। সামাজিক দূরত্ব বিধিকে সাইডে রেখে গায়েগায়ে লাইনে দেখা যাচ্ছে নিত্যযাত্রীদের। অফিস টাইমে সেই পুরোনো বাদুড়ঝোলা অবস্থা দেখা গেল লোকাল ট্রেনে ।



ট্রেনের ভেতরেও দুজনের যায়গায় তিনজন করে বসছে৷ যাত্রীদের বক্তব্য চাহিদা অনুযায়ী ট্রেনের সংখ্যা না বাড়ালে দূরত্ব বিধি মেনে যাতায়াত একেবারেই সম্ভব নয়। প্রচুর মানুষ ট্রেনে উঠছেন, ট্রেনের বাইরেও যেমন দূরত্ববিধি মানা হচ্ছে না ঠিক সেই ছবি টিকিট কাউন্টারেও।
আজ সকাল থেকেই ভিড়ে ঠাসা অবস্থা লক্ষ্য করা গেল শেওড়াফুলি স্টেশনে। সেখানে গেটের সামনে গায়ে গায়ে অনেক মানুষ দাড়িয়ে থাকে।



৫০% যাত্রী নিয়ে চলার কথা ট্রেন, কিন্তু বাস্তবে দ্বিতীয় দিন সকাল থেকেই দেখা গেল প্রচুর মানুষ ট্রেনে দাড়িয়ে যাচ্ছেন। বসার জায়গা নেই, দু’জনের জায়গায় তিনজন করে বসছেন।

অপরদিকে মল্লিকপুর স্টেশনে দূরত্ববিধি না মেনে টিকিট কাউন্টারে যাত্রীরা ভিড় করায় আরপিএক কর্মী প্রতিবাদ জানালে তার সাথে যাত্রীদের বচসা শুরু হয়ে যান।



যদি এভাবেই চলতে থাকে তাহলে করোনার প্রকোপ বাড়ার সংখ্যা আরও বেড়ে যাবে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...