Home ধর্মীয় গণেশ বন্দনা করলে সকল বিঘ্ন নাশ হয়, পূর্ণ হয় মনোবাঞ্ছা। বিস্তারিত জানুন..

গণেশ বন্দনা করলে সকল বিঘ্ন নাশ হয়, পূর্ণ হয় মনোবাঞ্ছা। বিস্তারিত জানুন..

আগামীকাল গনেশপূজা! গনশ বন্দনায় পূর্ন হবে আপনার মনোবাঞ্ছনা

ভাদ্রমাসের শুক্লপক্ষের চতুর্থী তিথিতে গনেশজির আরাধনা করা হয়। মনে করা হয়, এই দিন সিদ্ধিদাতা গনেশ ধরাধামে অবতীর্ন হয়ে ভক্তদের মনোবাঞ্ছা পূরন করেন। আর সেই কারনে তাকে সাফল‍্য, বুদ্ধি, জ্ঞান, সমৃদ্ধির দেবতাও বলা হয়।

শুভ কাজ ও কোন পুজোর শুরুতে গনেশ পুজো করলে বিঘ্ন নাশ হয় ও সাফল‍্য পাওয়া যায়।

পৌরানিক ঘটনা অনুযায়ী, দেবী পার্বতীর কোলে খনেশের জন্ম নেওয়ার পর তাকে দেখতে আসার জন‍্য অন‍্যান‍্য দেবতাদের পাশাপাশি শনিদেবকেও আহ্বান করেন দেবী। শনিদেব আর্শীবাদ করতে অনিচ্ছা প্রকাশ করলেও দেবীও নারাজ। শেষে অনিচ্ছার সঙ্গে আশীর্বাদের উদ্দেশ্য গনেশের দিক তাকাতেই তার মাথা পুড়ে ছাই! আর পুত্রের এই অবস্থা দেখে অচেতন হয়ে পড়লেন দেবী পার্বতী। অবশেষে সকল দেবদেবীর অনুরোধে ভগবান বিষ্ণু এক হস্তীশাবকের মস্তক এনে লাগানোর পর ছীবন ফিরে পান গনেশ। অন‍্যদিকে দেবী পার্বতীর জ্ঞান ফিরতেই প্রিয় পুত্রের এই রুপ দেখে ক্ষুব্ধ হন। সকলের মনে প্রশ্ন আসে, কীভাবে গনেশ দেবলোকে মর্যাদা ও স্থান পাবেন। অবশেষে দেবাদিদেব মহাদেব গনেশকে গনপতি ও সিদ্ধিদাতার স্বীকৃতি দেন।

এ বারের গণেশ পুজোর সময়সূচি –

আগামী 22 august, ৬ ভাদ্র, শনিবার, শুক্লপক্ষ

তিথি– চতুর্থী (শ্রী শ্রী গণেশ চতুর্থী)

21 august,5 ভাদ্র, শুক্রবার রাত 11টা 03 মিনিটে পুজো শুরু

22 august, 6 ভাদ্র, শনিবার রাত 07টা 58 মিনিটে সমাপ্ত।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...