Home রাজ্য "আমরা থাকলে বিজেপির কেল্লাফতে" রাজ্যের ৯০ টি আসনে ফ্যাক্টর মুসলিম ভোট...

“আমরা থাকলে বিজেপির কেল্লাফতে” রাজ্যের ৯০ টি আসনে ফ্যাক্টর মুসলিম ভোট…

এখন দেশে সংখ্যা লঘুর ভোটারের সংখ্যা বেশ ভালই। বাংলায় ২৮% ভোট মুসলিমদের হাতে। তাই প্রত্যেকটা দলই সেই ভোট টানতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু বিজেপি এই ভোট টানার লড়াই এ নেই। এখন লড়াই শুধু বাম কংগ্রেস জোট এবং তৃণমূলের মধ্যে। তাই ভোট যাবে কার হাতে তা অবশ্যই একুশের ভোটের ফলাফলের দিকে।




সংখ্যালঘুদের ধারণা তারা ভোটের ২৮% ভোটের নির্ধারণকারী। বাংলায় আসন ২৯৪টি। তার মধ্যে ৯০টি আসন সংখ্যালঘুদের হাতে।




সংখ্যালঘুদের নিয়ে বাংলায় অসম্প্রদায়িক ভাবমূর্তি তৈরির চেষ্টা করছে বিজেপি। ২০১৪ সালে সাচার ইভ্যালুয়েশন রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। মুসলিমদের অবস্থা কমবেশি একই থেকে যায়।



হুগলি, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায় প্রভাব ত্বহা সিদ্দিকির। প্রত্যেকবারের মতো এবারেও ত্বহার সঙ্গে কথা বিজেপি, কংগ্রেস, তৃণমূলের। ত্বহার পাল্টা হিসেবে তাঁর ভাইপো আব্বাস সিদ্দিকি প্রভাব বাড়াচ্ছেন। আব্বাস সিদ্দিকির নজরে ৪৪টির বেশি আসন। ফুরফুরা প্রভাবেও ভোট কাটাকুটির সম্ভাবনা। সংখ্যালঘু ভোট বিভাজন যত চওড়া হবে, চাপে পড়বে তৃণমূল। আর এই ফাঁকফোকর দিয়েই নিজেদের শক্তি বাড়াতে মরিয়া চেষ্টা করছে বিজেপি।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

মুক্তি পেলো DEZINIAX STUDIOS -এর প্রযোজনায় স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি “হুলো & মেনি”…

বাঙালীর শ্রেষ্ঠ উৎসব দূর্গা পুজো. আর দূর্গা পুজোয় প্রেম হবে না তা কি হয়. এবার পুজোয় তবে "হুলো আর মেনির প্রেম হয়ে যাক? অবাক...

পুজোর মরশুমে ‘মনের মানুষ’ দেবতনু রাজ করতে চলেছে সকলের “হৃদ মাঝারে”!

বর্তমানে পরিস্তিতি উদ্বেগ জনক হলেও বাঙালীরা ৩৬৫ দিন অপেক্ষা করে থাকে এই ৪টি দিনের জন্য। উমা ঘরে আসার সাথে সাথে চারিদিক খুশির আমেজে ভরে...

দাম্পত্য জীবনের প্রথম দূর্গা পুজো! কেমন কাটাচ্ছে অভিনেতা আরুষ এবং পায়েল?

এবিও পত্রিকার তরফ থেকে প্রথমেই আরুষ এবং পায়েল কে জানাই শুভ শারদীয়ার প্রীতি ও শুভেচ্ছা। গত বছর ২৭ নভেম্বর ২০২০ তে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে...

Klikk এর পক্ষ থেকে মুক্তি পেলো আরো একটি স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি “আগমনী”…

বাঙালীর শ্রেষ্ঠ উৎসব দূর্গা পূজা। ৩৬৫ দিন বাঙালীরা অপেক্ষা করে থাকে এই ৪টি দিনের জন্য। উমা ফেরে তার মায়ের ঘরে। চারিদিক মেতে ওঠে উৎসবের...