Home জেলার খবর "ও গেলে বাড়িতে রান্না করবে কে?" করোনা আক্রান্ত গৃহবধুকে না নিয়ে যাওয়ার...

“ও গেলে বাড়িতে রান্না করবে কে?” করোনা আক্রান্ত গৃহবধুকে না নিয়ে যাওয়ার জন‍্য আর্জি পরিবারের

বাড়ির চারজনেই করোনা আক্রান্ত। তবে তিনজনের দেহে উপসর্গ না মিললেও উপসর্গ মেলে বাড়ির গৃহবধুর শরীরে। আক্রান্তকে হাসপাতালে নিয়ে আসতে বাড়িতে হাজির হয় পুরসভার কর্মীরা। আর ঠিক তখন ই ওই মহিলার স্বামীর করুন আর্তি,” দাদা আপনারা প্লিজ ওনাকে নিয়ে যাবেননা। আপনারা তো একজনকে নিয়ে যেতে চান। তো ওকে বাদে যাকে খুশি নিয়ে যান। কিন্তু দয়া করে ওনাকে নেবেন না।” আর এই ঘটনায় রীতিমত চক্ষু চড়কগাছ ওই পুরসভার কর্মীদের। কর্মীরা বিস্ময়ের সঙ্গে কারন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ ও চলে গেলে বাড়িতে ভাতের হাড়ি যে চড়বে না। ‘তার এই কথায় হতস্তম্ভ কর্মীরা। তাদের মুখে একটাও টু শব্দ নেই।

এই ঘটনার সাক্ষী হল রিষড়া পুরসভা। যদিও করোনাকালে এমন আরও ঘটনার সাক্ষী রয়েছেন পুরসভার কর্মীরা। তারা দীর্ঘক্ষন বাড়ির গৃহস্থকে বোঝানোর চেষ্টাকরেন যে তারা গৃহবধু বাদে অন‍্য কাউকে নিতে নারাজ। কিন্তু সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, গৃহবধুকে নিয়ে যাওয়া যাবে না। তার বদলে অন‍্য কাউকে নিয়ে যান। শেষ পর্যন্ত হুলুস্থুলু কান্ড বেধে যায়। বাধ‍্য হয়ে বাড়ি থেকে একরকম ছিনিয়েই তারা গৃহবধুকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

ঘটনার সাক্ষী পুরসভার করোনাবিষয়ক নোডাল অফিসার অসিতাভ গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘ বিষয়টা ভোলার নয়। বাড়িতে হাড়ি চড়বে না বলে তারা বাড়ির বউকে যেতে দিতে চাইছেন না। কিন্তু তারা জানেননা একজন করোনা আক্রান্তকে বাড়িতে রাখা কতটা বিপজ্জনক। রান্নাকে করবে সেই চিন্তায় হয়ত সেই কথা তাদের মাথা থেকে উড়ে গেছে।’

অবশ‍্য এমন উদাহরন পুরোনো কিছু নয়। করোনা আক্রান্তদের সামলাতে রীতিমতো ঝক্কি নিতে হয় পুরসভার কর্মীদের। একজন করোনা আক্রান্ত ব‍্যক্তি বাড়ি থেকে পালিয়ে

গিয়েছিলেন। পরিবারের লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেও হদিশ মিলছিল না। অবশেষে ময়দানে নামতে হয় পুলিশকেই। বাড়ির লোকজনকে গ্রেপ্তার করার ভয় দেখাতেই ফিরে আসে আক্রান্ত ব‍্যক্তি। আর এরপর আক্রান্ত স্ত্রীকেই বাড়িতে আটকে রাখার প্রস্তাব। সত‍্যিই ভোলা যায় না এইসব ঘটনাগুলি।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...