Home অজানা তথ্য এই চারটি চিহ্ন থাকলে আপনাকে প্রচুর সম্পত্তির মালিক হওয়া থেকে কেউ আটকাতে...

এই চারটি চিহ্ন থাকলে আপনাকে প্রচুর সম্পত্তির মালিক হওয়া থেকে কেউ আটকাতে পারবে না

আধুনিক যুগে দাঁড়িয়েও অনেক মানুষ বিশ্বাস করে ভাগ্যকে, ভাগ্যের জোরে যেকোনো সময় পালটে যেতে পারে জীবন একথা আজও অনেকেই মানেন। হিন্দু ধর্মের সমুদ্র শাস্ত্র অনুযায়ী মানবদেহের প্রত্যেকটি অঙ্গের নিজস্ব কিছু বৈশিষ্ট্য আছে, সাথেই আছে কিছু গুরুত্বও। অনেকেই ভাগ্য পরিবর্তনে বিশ্বাস রাখে তাই আজও মানুষ লটারির টিকিট কাটে।



সহজেই যদি ধনী হওয়া যায় সেই সুযোগকে কেউ হাতছাড়া করতে চায় না। মানব শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের এমন এমন কিছু চিহ্ন থাকে যা ভাগ্য পরিবর্তনের ইঙ্গিতবাহী।

যাদের হাতের তালুর মধ্যে রথচক্র বা পতাকা চিহ্ন থাকে তাদের খুবই ভাগ্যবান বলে মনে করা হয়। এই চিহ্ন থাকা ব্যক্তিরা যেকোনো বিষয়ে সফল হয় তা কাজের ক্ষেত্রে হোক বা প্রেমের ক্ষেত্রে।



২. যেসব ব্যক্তিদের হাতের তালুর মাঝে তিল থাকে তারা প্রতিষ্ঠিত তো হয় সাথেই সমাজের সম্মানিত ব্যক্তি রূপেও স্বীকৃতি পায় এবং তারা অনেক অল্প বয়সেই অনেক সম্পত্তির মালিক হয়।



৩. যাদের পায়ে পদ্ম চিহ্ন থাকে কিংবা চক্র চিহ্ন থাকে তাদের বিদেশ গমনের সম্ভাবনা থাকে, এদের সব মানুষই পছন্দ করে থাকেন এবং এরা সকলের সাথেই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে পারে। কোনো এক সময় প্রচুর অর্থলাভ হয় এই চিহ্ন থাকা ব্যাক্তিদের।



৪. যাদের পায়ের তলায় তিল থাকে তাদের অনেক ধন সম্পত্তির যোগ থাকে, তাদের জীবনে কখনো টাকার অভাব হয় না। এরা খুবই পরোপকারী হয় এবং জীবনে অনেক সুখী হয়।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...