Home জেলার খবর যমজ সন্তানের জন্য রাত দিন জেগে আনন্দের সঙ্গে সবকিছু শিখছেন সিঙ্গেল ফাদার

যমজ সন্তানের জন্য রাত দিন জেগে আনন্দের সঙ্গে সবকিছু শিখছেন সিঙ্গেল ফাদার

যমজ সন্তানের জন্য রাত দিন জেগে আনন্দের সঙ্গে সবকিছু শিখছেন সিঙ্গেল ফাদার

একা দায়িত্ব পালন করছেন মা এবং বাবার, সারারাত প্রায় জেগেই কাটাতে হয়, কিন্তু এই জাগা আনন্দের, হয় না ক্লান্তি। সিঙ্গেল ফাদার অভিষেক পাল
মাস ২০ দিনের যমজ সন্তানদের নিয়ে সুখে আছেন, শিখছেন বাচ্চা সামলানো।
বাবা হওয়ার আনন্দ তাকে কিছুটা ভুলিয়ে দিয়েছে বিষাদ যন্ত্রণার কথা। লকডাউনের মধ্যে বাবা হয়েছেন অভিষেক সারোগেসির মাধ্যমে। আবাহন-অধ্যয়নের দুই যমজ সন্তানের কান্না শুনে বুঝতে পারেন কোনটা কোলে ওঠার কান্না আর কোনটা খিদে পাওয়ার কান্না৷

করোনার সংক্রমণের ভয়ে বাড়িতে আয়া না রেখে নিজেই দিনরাত দেখভাল করছেন ছোট্ট দুই শিশুর।
২০১৯ সালে অভিষেক পাল এর জীবনে আসে এক আনন্দের সময়, তাঁর স্ত্রী দেবস্মিতা ছিলেন ৮ মাসের গর্ভবতী। নতুন সদস্য আসার অপেক্ষায় ছিলেন সকলে, কিন্তু সেই সুখ দেখার আগেই তার জীবনে নেমে এল অন্ধকার, স্ত্রী-সন্তান দু’জনই চলে গেল পৃথিবী থেকে,
অনেকেই বিয়ে করার পরামর্শ দিলেও দেবস্মিতার জায়গায় বসাতে পারবেন না কাউকে, তাই জীবন কাটাতে থাকে একাই , কিন্তু চেয়েছিলেন সন্তান৷ তাই দীর্ঘ ‘দু’বছর ধরে ভাবার পর এক বন্ধু সিঙ্গেল ফাদার হওয়ার পর তাকে দেখে মনে জোর পেয়ে সিদ্ধান্ত নেন তাঁর স্বপ্নপূরণের।
লকডাউনের মধ্যেই ২ এপ্রিল জন্ম গ্রহণ করে আবাহন-অধ্যয়ন। লকডাউনের কারণে প্রথম দু’মাস ছেলেদের কাছে পান নি, অবশেষে মে মাসের ২৯ তারিখ সন্তানদের কোলে নিয়ে যে পরম শান্তি পান তা ভাষায় ব্যক্ত করা অসম্ভব।

অভিষেকের বাড়িতে আছা বৃদ্ধা মা ও অশীতিপর দিদা, মাতৃত্বের নানা খুটি নাটি জানছেন তাদের থেকেই, বছর আটচল্লিশের অভিষেক পাল জানান দু’নের মধ্যে বড়টা বেশি দুষ্টু। তিনি জানিয়েছেন প্রথমে ভয় লাগলেও , সন্তানকে কোলে নিলেও উধাও হয়ে যাবে সব ভয়। তিনিও শিখে নেবেন সন্তানকে মানুষ করতে,তিনি একাই ঠিক পারবেন, বিশ্বাস তাঁর।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...