Home জেলার খবর শ্রীরামপুরে ঐতিহ্যশালী পূজোর মধ্যে অন্যতম দে' বাড়ির দুর্গোৎসব। কেনো ঐতিহ্যশালী এই পূজো?

শ্রীরামপুরে ঐতিহ্যশালী পূজোর মধ্যে অন্যতম দে’ বাড়ির দুর্গোৎসব। কেনো ঐতিহ্যশালী এই পূজো?

শ্রীরামপুরে ঐতিহ্যশালী পুজো গুলির মধ্যে অন্যতম দে’ বাড়ির দুর্গোৎসব,যেখানে মায়ের সন্তান চারশো জন ৪০০ র বেশি সন্তান একসাথে মা’য়ের পুজোয় আনন্দে মেতে ওঠে, মা তার চারশোর অধিক সন্তানকে নিয়ে বসবাস করছেন। মায়ের টানেই তারা একসাথে আছে। শুনতে অবাক লাগলেও সত্যি, সকল সন্তানরা একসাথে মিলে মায়ের পুজোয় সামিল হন।
শ্রীরামপুরের দে বাড়ির ঘটনা এটি।



যেখানে বর্তমান সময়ে অনেকেই একান্নবর্তি ধারণাটি ভুলতে বসেছে সেই সময়
শ্রীরামপুরের দে বাড়ির সদস্যের সংখ্যা চারশোর বেশি। আর তাদের জীবনকে এক সুতোয় বেধে রেখেছে মা দুর্গা।

কয়েক বছর আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় একটি ছবি যেখানে দেখা যায়, টেনিস কোর্টের সামনে বিশাল বড় ঠাকুরদালান সেখানে বিজয়া দশমীর দিন দেবী দুর্গাকে বরণ করছেন একশো জনের বেশি।



এই বাড়ির পুজো শুরু হয় রথযাত্রার দিন কাঠামো পুজোর মাধ্যমে। চক্ষুদান হয় মহালয়ায়। মহালয়ার পরের দিন থেকে শুরু হয়ে যায় মিষ্টি তৈরী যা মা’কে নিবেদন করা হয়।
শ্রীরামপুরের এই দুর্গা পুজো চলছে ২৬৯ বছর ধরে, সারাবছর যে যার কাজে ব্যস্ত থাকলেও পুজোর কটা দিন সকলে মিলে আনন্দ করে।



মায়ের টানেই ৪০০ জন একসাথে একই বাড়িতে বসবাস করছে। তবে আগে যেমন জাঁকজমক করে পুজো হতো এখন তেমনটা হয় না।

ষষ্ঠী ও দশমীর দেবীবরণ হয় দেখার মতো যেখানে প্রায় একশোর কাছাকাছি কূলবধূ মা’কে বরণ করেন। ধুনো পোড়ান বাড়ির বড়রা। অষ্টমীতেও হয় ধুনো পোড়ানো, নবনীর ‘বেড়াঞ্জলি’ তে বাড়ির পুত্র-পুত্রবধূরা মা কে প্রদক্ষিণ করে বিয়ের জোড় ও বেনারসী পড়ে এবং অঞ্জলি দেয়। এটিও একটি বিশেষ অনুষ্ঠান এই বাড়ির পুজোয়।



হুগলী জেলার শ্রীরামপুরে ঐতিহ্যশালী পুজো গুলির মধ্যে অন্যতম দে’ বাড়ির দুর্গোৎসব। আগের মতো জমিদারি প্রতিপত্তি এখন না থাকলেও পুজোতে নিষ্ঠা এবং সকলের মিলে মা’কি ঘিরে যে আনন্দ তা একটুও কম হয়নি।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

শুরু হয়ে গেলো দেব রুক্মিনীর ভালোবাসার নতুন সফর! “কিশমিশ”-এর শুভ মহরত…

বড়ো পর্দায় চ্যাম্প, কিডন্যাপ, ককপিট, কবীর, পাসওয়ার্ড এর মতো ছবিতে একসঙ্গে দেখা মিলেছে দেব রুক্মিণী জুটির. এবার ষষ্ঠ বার সিলভার স্ক্রিনে জুটি বাঁধতে চলেছেন...

ঘুম থেকে উঠে মানুন কিছু ছোট্ট টোটকা….

ফর্সা হতে চান! ঘুম থেকে উঠে মানুন কিছু ছোট্ট টোটকা এখন কেবল নারীরা নয়, পুরুষরাও নিজেকে সভান সুন্দর ও আকর্ষনীয় দেখাতে আগ্রহী। নিজেকে ফর্সা ও...

অতনু ঘোষের ছবি ‘শেষ পাতায়’ থাকছেন প্রসেনজিৎ-গার্গী-বিক্রম…

এই অতিমারীর পরিস্তিতি স্বাভাবিক হলেই ছন্দে ফিরবে টলিউড ইন্ডাস্ট্রি. পরবর্তী ছবির ঘোষণা করলেন পরিচালক অতনু ঘোষ. 'ময়ূরাক্ষী', 'রবিবার' এর পর অতনু ঘোষের "শেষ পাতা"...

অঙ্গ দান করলেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার…

এই করোনা পরিস্তিতিতে আগের বছর থেকেই বিভিন্ন অভিনেতা অভিনেত্রীদের দেখা গেছে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে. কিন্তু এবার এক অভিনব প্রয়াস অঙ্গ দান করতে এগিয়ে...