Home জেলার খবর শেওড়াফুলি বাজারকে ফিরিয়ে আনার লড়াইয়ে বাধা পুলিশের। গ্রেফতার ২০ জন মহিলা

শেওড়াফুলি বাজারকে ফিরিয়ে আনার লড়াইয়ে বাধা পুলিশের। গ্রেফতার ২০ জন মহিলা

শেওড়াফুলি বাজার কে পুনরায় আগের জায়গায় ফিরিয়ে আনতে দীর্ঘদিন ধরেই লড়াই চলিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের বারবার বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার, তবুও থেমে থাকেনি তাদের লড়াই। শেওড়াফুলি বিজেপি মন্ডল সভাপতি আমাদের আগেও জানিয়েছেন যে গরিবের ও মেহনতি মানুষের স্বার্থে তারা সর্বদাই এগিয়ে যাবেন কোনো বাধাবপত্তি তাদের পথচলাকে থামিয়ে দিতে পারবেনা। শেওড়াফুলি বাজাররের স্থানান্তরন তারা কখনওই মেনে নেবেন না। সকল মানুষের স্বার্থে শেওড়াফুলি বাজারকে পুনরায় আগের স্থানে ফিরিয়ে তারা আনবেই।


আজ শেওড়াফুলি বাজারকে রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় পুনরায় ফিরিয়ে আনার লক্ষে শেওড়াফুলি ঘোষ মার্কেট থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল ও মিছিল শেষে ডেপুটেশন জমা দেওয়ার কার্যাবলি স্থির করে তারা জমায়েত করেন শেওড়াফুলি ঘোষ মার্কেট এলাকায়।



আজ এখানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ সাংগঠনিক মহিলা মোর্চার সভাপতি অগ্নিমিত্রা পাল, জেলা বিজেপি সভাপতি শ্যামল বোস, স্নেহাংশু মহান্ত, শষি সিং প্রমুখ।

সূত্রের খবর অনুযায়ি শেওড়াফুলি ঘোষ মার্কেট এলাকায় জমায়েত হওয়া মাত্রই পুলিশ তাদের উপর আক্রমন করেন এবং গ্রেফতার করেন প্রায় কুড়ি জন মহিলা সহ আরও কিছু বিজেপি নেতৃত্ব কেও।



কিন্তু মানুষের প্রশ্ন একটাই কেন বার বার বাধা প্রদান করা হচ্ছে এই মহত উদ্দ্যেশ্য কে? কেন সরকার চায়না শেওড়াফুলির ঐতিহ্য যে বাজারকে কেন্দ্র করে সেই বাজারকে পুনরায় ফিরিয়ে আনতে? এর পেছনে কি কারণ থাকতে পারে? আপনাদের মতামত জানান কমেন্ট করে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...