Home বিনোদন লকডাউনের মাঝে রবীন্দ্র সঙ্গীত নিয়ে হাজির প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পীর দল

লকডাউনের মাঝে রবীন্দ্র সঙ্গীত নিয়ে হাজির প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পীর দল

“বিস্বাদ” শব্দটির স্বাদ গ্রহণ প্রতিটি মানুষ তার নিজ জীবনে কখনো না কখোনো নিশ্চই গ্রহণ করেছেন। কিন্তু সারা পৃথিবীর মানুষের একত্রে এই ‘বিস্বাদের’ স্বাদ গ্রহণের ব্যাপারটা হয়তো এর আগে ইতিহাসের পাতায় দেখা মেলেনি। এমনই একটা সময়ের মধ্যে দিয়ে আমরা এখন দিন কাটাচ্ছি যে সময়ের দীর্ঘনিশ্বাস পরেছে সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষের ঘাড়েই। বাদ যায়নি সঙ্গীত জগতও।
মানুষের চোখ আজ স্থির হয়েছে ঘড়ির কাটায় আর ক্যালেন্ডারের পাতায়, সেখান থেকে একটু মন ঘোরাতে টিভির পর্দায় চোখ রাখলে, সেখানে শুধুই মহামারির রাশি রাশি দুঃসংবাদ।
সাধারণ মানুষ যেমন তার প্রিয় শিল্পীদের গান না শুনে থাকতে পারেনা, তেমনই শিল্পীদেরও দমবন্ধ হয়ে আসে তার শ্রোতাদের গান শোনাতে না পারলে। কিন্তু এই ভাবে শিল্পীদের শৈল্পিক সত্তা কে কখনোই আটকে রাখা যায় না। শিল্পীরা তাদের শৈল্পিক সত্তাকে তুলে ধরতে এবং শ্রোতাদের মন ভালো করতে এগিয়ে এসেছে বার বার।

সেই প্রয়াসকে অবলম্বন করেই আজ মুক্তি পেলো আশা অডিও থেকে “আমার মুক্তি” গানটি। এই গানটিতে অনেক স্বনামধন্য শিল্পীরা গেয়েছেন। তারা হলেন- জয় সরকার, শোভন গাঙ্গুলি, নিকিতা গান্ধি, তৃষা পারুই, ঈক্সিতা মুখার্জী, প্রান্তিক সুর, উজ্জয়ীনি, দুর্নিবার সাহা, ঈশানি প্রমুখেরা।

আমরা সকলেই জানি বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একাধিক গানের মধ্যে একটি অন্যতম শ্রেষ্ঠ গান “আমার মুক্তি আলোয় আলোয়”।
রবীন্দ্রনাথের গানের অনেক দিক রয়েছে তার একটি বিশেষ দিক হচ্ছে মন নিয়ে। তার গানে যেমন প্রকৃতি রয়েছে, তেমনি রয়েছে আধ্যাত্মিক দর্শন। কবিগুরু তার অনেক গানেই মনের মুক্তির কথা বলেছেন। মন বিকশিত আর মুক্ত না হলে জীবনে পরিপূর্ণতা আসে না।

বর্তমানে আমরা যে পরিস্তিতির মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছি সেই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে সত্যি আমরা কবিগুরুর ভাবনায় মুক্তির আলোর অপেক্ষায় রয়েছি। আর সেই ভাবনাকেই এই শিল্পীরা তাদের কণ্ঠের মাধ্যমে যথাযথ রূপ দিয়েছেন।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...