Home সাক্ষাৎকার "নেতিবাচক মন্তব্য আমাকে সবসময় মোটিভেট করে" সাক্ষাৎকারে সুপার সিঙ্গারের অদিতি...

“নেতিবাচক মন্তব্য আমাকে সবসময় মোটিভেট করে” সাক্ষাৎকারে সুপার সিঙ্গারের অদিতি…

একাধিক বার যাকে হতে হয়েছে নেতিবাচক মন্তব্যের সম্মুখীন। তবুও হার না মেনে সাফল্যের পথে এগিয়ে চলেছে সে। খুব ইমোশনাল ও সেনসিটিভ মানুষ হলেও যার মনটা এখনো বাচ্চা, সে এখনো অভিমান হলে মাকে চিঠি লেখে। আজ আমাদের সাথে আড্ডায় সেই চঞ্চল, প্রাণবন্ত মেয়ে অদিতির সম্মুখীন আমি সুস্মিতা

প্রশ্ন: গান শেখার শুরু কি ভাবে?

অদিতি: ছোটোবেলা থেকেই ইচ্ছা ছিল গান নিয়ে কিছু করার। আমার বাড়ীর পরিবেশটাও সঙ্গীতকে ঘিরেই। মা, দিদা দুজনেই গান করতেন। যার ফলে ছোটোবেলা থেকেই গানের প্রতি একটা আলাদা টান ছিল। যখনই গান শুনতাম চুপ করে বসে থাকতাম মন দিয়ে গান শুনতাম। তাছাড়া আমার গানের মূল সুর পাওয়া মায়ের কাছ থেকে এমনকি আমার সংগীত জগতে পদার্পণও আমার মায়ের হাত ধরে। এখনও আমার জার্নিটা সেই ভাবে শুরু না হলেও যতটা পেয়েছি তার পুরোটাই মায়ের জন্যে।

 

প্রশ্ন: তুমি তোমার জীবনে আদর্শ বলে কাকে মনে কোরো?

অদিতি: আমার জীবনের আদর্শ অবশ্যই আমার মা। এছাড়াও আমার শিক্ষাগুরুরা। তাদের শিক্ষায় আমি এতদূর পৌঁছতে পেরেছি। আমার ক্লাসিকাল সঙ্গীত গুরু “পন্ডিত জয়ন্ত সরকার“, রবীন্দ্র সংগীতের গুরু “শ্রীমতী জয়তী চক্রবর্তী“, এবং লোক সংগীতের গুরু “অভিজিৎ বসু” এনাদের অবদান আমার জীবনে অনেক বেশি যা আমি ভাষায় প্রকাশ করতে পারবো না। যেমন আমি আগেও বলেছি আমার গানের মূল সুর পাওয়া আমার মায়ের কাছ থেকে তেমনই শিক্ষাগুরুদের অবদানও আমার জীবনে গুরুত্বপূর্ণ।

প্রশ্ন: তোমার এগিয়ে চলার পথে তুমি অনুপ্রেরণা কার কাছ থেকে পাও?

অদিতি: অবশ্যই মায়ের কাছ থেকে। জীবনের কঠিন থেকে কঠিনতম পরিস্থিতিকে কি ভাবে সামলে এগিয়ে যেতে হবে সেই সমস্ত কিছুই আমার মাকে দেখে শেখা। যেকোনো সিদ্ধান্তে মা আমাকে ভীষণ ভাবে সমর্থন করেন এবং মা এটাও বলেন “যদি কিছু খারাপ হয় কোনো ব্যাপার না, জানবে এরপর তোমার সাথে ভালো কিছু ঘটবে। তাই খারাপ কিছু হয়েছে বলে ভেঙে না পরে সেই পরিস্থিতিকে শক্ত মনে কাটিয়ে উঠতে হবে“।

প্রশ্ন: অবসর সময় গান ছাড়া আর কি করতে পছন্দ করো?

অদিতি: গান ছাড়া অভিনয়ের প্রতি আমার ভীষণ ঝোঁক রয়েছে। আমি থিয়েটার করেছি এমনকি এখনো আমি একটি থিয়েটার এর সাথে যুক্ত যার নাম “শিশু রুপম“। একটা বিশেষ কথা হলো আমার থিয়েটারের শিক্ষাগুরু যিনি ছিলেন “স্বর্গীয় মানব মুখোপাধ্যায়” তিনি প্রথম মানুষ যিনি বলেছিলেন “অভিনয়টা যেমন করছিস কর তার পাশাপাশি গানটাকেও চালিয়ে যাস। কারণ গানই তোকে অনেক দূর নিয়ে যাবে”। এছাড়া টুকটাক গান লিখি, বই পড়ি, আর বাদ্যযন্ত্র নিয়ে একটু ঘাটাঘাটি করি।

প্রশ্ন: সকলে তোমায় একজন হাসিখুশি গায়িকা হিসেবে চেনে। সকলের চোখের আড়ালে অচেনা তুমিটি কেমন?

অদিতি: অচেনা আমি খুবই ইমোশনাল, খুবই সেনসিটিভ, খুব কঠিন কথা বা মন্তব্য আমি নিতে পারি না। তাবলে এই না যে বাস্তবটা মেনে নিতে পারি না এমনটা নয়। ওই হয় না যে কোনো কথা যেটা ভালো ভাবে বুঝিয়ে বললে হয় কিন্তু অনেকে সেটা কঠিন করে বাজে ভাবে বলে এই ব্যাপারটা আমি মানতে পারি না। তবে আমি যদি খুব ইমোশনাল হয়ে পরি সেটা বাইরে থেকে দেখে কেউ বুঝতে পারবে না। যতটা পারি চেষ্টা করি নিজেকে নিয়ে থাকার। ভিতরের কষ্টটা যাতে বাইরে প্রকাশ না পায়। যাতে মা আমাকে দেখে কষ্ট না পায়।

আবার একটা বাচ্চা মানসিকতাও আমার মধ্যে আছে। যখন মায়ের ওপর অভিমান হয় তখন আমি চিঠি লিখি। আর মায়ের থেকে রিপ্লাই টাও চিঠিতেই আসে।

প্রশ্ন: সাফল্যের পথে অনেক নেতিবাচক উক্তির সম্মুখীন তোমাকে হতে হয়েছে এই ব্যাপারে তোমার কি বক্তব্য বা সেই পরিস্থিতিতে কিভাবে কাটিয়ে উঠেছো?

অদিতি: হ্যাঁ, অনেকে অনেক রকম মন্তব্য করেছে যেমন আমি নাকি গান করতে পারি না, আমার গান নাকি “ভূতের কেত্তন”, আমার গান গাওয়া একদমই ঠিক নয়! এরকম অনেক কটু কথার সম্মুখীন আমায় হতে হয়েছে। এমনকি আমার গায়ের রং নিয়েও অনেকে অনেক কথা বলেছে। কিন্তু সত্যি কথা বলতে এই কথাগুলোই আমাকে ভীষণ ভাবে মোটিভেট করেছে। সময় তাদের উত্তর দিয়েছে। তখন যারা আমায় নিয়ে কাজ করতে চাইতো না আজ তারাই বিভিন্ন শো এর জন্য ফোন করে। অদ্ভুত লাগে এই আর কি।

সবশেষে এবিও পত্রিকার পক্ষ থেকে অদিতিকে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ। তার মহামূল্যবান সময় থেকে আমাদের কিছুটা সময় দেওয়ার জন্য।
আমাদের তরফ থেকে তোমার আগামী দিনের জন্য রইলো অনেক শুভেচ্ছা। তুমি ও তোমার পরিবারের সকলে ভালো থাকো, সুস্থ থাকো এই কামনা করি।

অদিতির ফেসবুক পেজটি লাইক করুন: https://www.facebook.com/aditiboseofficial/

আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন: https://facebook.com/abopatrika/

- Advertisment -

জনপ্রিয়

মুক্তি পেলো অভিজিৎ চৌধুরী ও প্রকাশ শিকদার পরিচালিত স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি “শিউলি”…

এই পুজোয় মুক্তি পেলো জয় রায় এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি 'শিউলি'। ছবিটি পরিচালনা করেছেন অভিজিৎ চৌধুরী ও প্রকাশ শিকদার। পরিচালক তাদের এই স্বল্প দৈর্ঘ্যের...

কলকাতা শহরের গল্প নিয়ে আসছে পাভেল এর নতুন ছবি “কলকাতা চলন্তিকা”…

কলকাতা শহরের গল্প নিয়ে আসতে চলেছে পাভেল পরিচালিত নতুন ছবি "কলকাতা চলন্তিকা"। এর আগে পাভেল পরিচালিত 'বাবার নাম গান্ধীজী', 'রসগোল্লা', 'অসুর'-এর মতো ছবি সিনেমাপ্রেমীদের মন...

লাল চোখে কুটিল হাসি “রাবণ” অবতারে ছবি পোস্ট করে চমকে দিলেন অভিনেতা জিৎ…

ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠেছে বিনোদন জগৎ। এই দুৃর্গাপুজোতে মুক্তি পেয়েছে জিৎ-এর দক্ষিণী ছবি ‘নান্নাকু প্রেমাথু’র অফিশিয়াল রিমেক ‘বাজি’। এই ছবিতে জিতের বিপরীতে অভিনয়...

মুক্তি পেলো Asheq Manzur প্রযোজিত এবং Arup Sengupta পরিচালিত মিউজিক ভিডিও “অনুভবে” টিজার…

3p প্রোডাকশনের পক্ষ থেকে এবং Arup Sengupta-র পরিচালনায় ২০ অক্টোবর মুক্তি পেতে চলেছে "অনুভবে" মিউজিক ভিডিওটি. সম্প্রতি মুক্তি পেলো "অনুভবে" মিউজিক ভিডিওটির টিজার. বাংলাদেশ...