Home সেলিব্রিটি জন্মদিনে নিজের হাতে রান্না করে দুস্থ শিশুদের খাওয়ালেন অভিনেত্রী পায়েল সরকার

জন্মদিনে নিজের হাতে রান্না করে দুস্থ শিশুদের খাওয়ালেন অভিনেত্রী পায়েল সরকার

জন্মদিনে নিজের হাতে রান্না করে দুস্থ শিশুদের খাওয়ালেন অভিনেত্রী পায়েল সরকার

জীবনের একটি বিশেষ দিন হল জন্মদিন, আমরা এক এক জন এক এক ভাবে এই দিনটি পালন করি, কেউ পার্টি দিয়ে, কেউ রেস্তোরাঁয় বন্ধুদের সাথে কেকে কেটে বা কেউ পরিবারের সকলের সাথে হই হুল্লোড় করে আনন্দ উপভোগ করে এই দিনটির। কিন্তু অভিনেত্রী পায়েল সরকার নিজের জন্মদিনটি পালন করলেন একটু আলাদা ভাবে।
সকলের আনন্দে তিনি নিজের আনন্দ খুঁজে নিলেন ৷

জন্মদিনের সকালে তিনি
পরিচয় রিলিফ ফান্ডের তরফ থেকে দুস্থ পথ শিশুদের মুখে সামান্য হাসি ফোটানোর প্রয়াস করলেন এবং এতে তিনি একেবারে সফলও হয়েছেন। দুস্থ শিশুদের খাবার খাওয়ানোর জন্য জন্মদিনের সকালে অনেক তাড়াতাড়ি উঠে ৪০ জন শিশুর রান্না করেন একা হাতে। অভিনেত্রীর বিশ্বাস
আনন্দ মানে নাইট ক্লাব, বার বা ডিসকো নয়, আনন্দ হল দুস্থ অবহেলিত মানুষের মুখে হাসি ফোটানো, তারা তো চাইলেও মাঝে মধ্যেই রেস্তোরাঁ থেকে অর্ডার করে বা ভালো মন্দ খাবার বানিয়ে খেতে পারেনা, তাই তাদের জন্য নিজের হাতে ভালো খাবার রান্না করেন অভিনেত্রী পায়েল।

তারপর সকলকে মাস্ক বিতরণ করেন এবং সানিটাইজ করে সকলকে নিজের হাতে খাবার বেড়ে খাইয়ে দেন অভিনেত্রী ।
এরকম ভাবে সকলের খুশির মধ্যে নিজের খুশি খুঁজে নিতে পারেন খুব কম মানুষ, যার মধ্যে একজন হলেন পায়েল সরকার। তিনি শুধু দুর্দান্ত অভিনেত্রীই নন অনেক বড় মনের মানুষও।

তাই জন্মদিনের কেক এই সমস্ত দুস্থ পথ শিশুদের সামনে কেক কেটে নিজের জীবনের বিশেষ দিনের আনন্দ ভাগ করে নিলেন অনেক মানুষের আশীর্বাদ নিয়ে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...