Home দেশ মোটরবাইকে ঘুরে ঘুরে সকাল থেকে রাত এলাকার বাচ্চাদের পড়াচ্ছেন এক ব্যক্তি...

মোটরবাইকে ঘুরে ঘুরে সকাল থেকে রাত এলাকার বাচ্চাদের পড়াচ্ছেন এক ব্যক্তি…

করোনা সংক্রমণের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ স্কুল, তবে বিকল্প হিসেবে ক্লাস হচ্ছে ডিজিটাল মাধ্যমে, শহরাঞ্চলে এভাবে ক্লাস ঠিক ঠাক চললেও প্রত্যন্ত গ্রামে মোবাইল দেখা যায় খুব কম মানুষের কাছে, সেখানে কম্পিউটার , ইন্টারনেট, ল্যাপটপ কী তাই অনেকে জানেন না, যেখানে কেউ ঠিকা কাজ করে কোনওরকমে সংসার চালায় তো কেউ লকডাউনে কাজ হারিয়ে ফেলেছে, এমন গ্রামগুলিতে অনলাইন ক্লাসের থেকে দুমুঠো ভাত জোগাড় করা বেশি গুরুত্বপূর্ণ তাদের কাছে।

তবে দুঃস্থ পরিবারের বাচ্চাদের শিক্ষায় যাতে কোনো ক্ষতি না হয় তাই এক শিক্ষক ঘুরে ঘুরে নিজের শিক্ষা জ্ঞান ছড়িয়ে দিচ্ছে এলাকার বাচ্চাদের মধ্যে।



ছত্তীসগড়ের কোরিয়া জেলার রুদ্র রানা নামের এক শিক্ষক
মোটরবাইক এ বোর্ড লাগিয়ে অঙ্ক, ভূগোল, বিজ্ঞান, ইতিহাস পড়াচ্ছেন বাচ্চাদের।

রোজ সকাল থেকেই শুরু হয়ে যায় তার বাড়ি বাড়ি ঘুরে বাচ্চাদের জড়ো করে ক্লাস নেওয়া। সারাদিন বিভিন্ন এলাকায় ক্লাস নেন তিনি,এই ‘মহল্লা’ ক্লাসের জন্য কিন্তু
কোনো পারিশ্রমিক নেন না রুদ্র স্যর।
দীর্ঘদিন ধরে স্কুল বন্ধ থাকায় বাচ্চাদের যাতে পড়াশোনায় ক্ষতি না হয় সেই দায়িত্বভার নিজের কাঁধে তুলে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পড়িয়ে আসছেন তিনি। বাচ্চাদের শুধু পড়ানোই নয় পাশাপাশি বইখাতা, খাবার, লজেন্স কিনে দেওয়া এসবও করছেন তিনি।



পড়াশোনাতে যাতে বাচ্চাদের ভয় না হয়, বরং আগ্রহ বাড়ে তাই রঙবেরঙের বই দিয়ে বাচ্চাদের পড়ায় রুদ্র স্যার। ছোট থেকে যাতে তারা শিক্ষাকে ভালোবাসে সেই প্রচেষ্টায় ব্রতী তিনি।



ছত্তীসগড়ের প্রত্যন্ত গ্রামগুলোয় যেখানে শিক্ষার আলো এখনও নেই বরং কৈশোর থেকে রোজগারের জন্য বেরিয়ে যায় এলাকার ছেলেরা, মেয়েরা পায় না পড়ার সুযোগ সেই স্থানে শিক্ষিত নয় এলাকার মানুষ যাতে মহাজনদের কাছে না ঠকে, নিজেদের পরিশ্রমের ন্যায্য পাওনা আদায় করতে পারে তাই গ্রামের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনায় আগ্রহী করে তুলতে চেষ্ঠা করছেন তিনি৷ কারণ তিনি জানেন শিক্ষাই পারে কুসংস্কার দূর করে অন্ধকার থেকে আলোর দিকে নিয়ে আসতে৷

- Advertisment -

জনপ্রিয়

মায়ের মৃত্যুদিনে পথ পশুদের কল্যাণার্থে পারমিতা মুন্সী ভট্টাচার্য এর পরিচালনায় হয়ে গেলো ‘বর্ষ বরণে বিবিয়ানা’

পথপশুদের কল্যাণার্থে শিবানী মুন্সী প্রোডাকশনের 'বর্ষবরণে বিবিয়ানা' শীর্ষক বাংলা নববর্ষের ক্যালেন্ডার প্রকাশ হয়ে গেল। এই ক্যালেন্ডার থেকে সংগৃহীত অর্থ খরচ করা হবে পথ পশুদের...

কি করলে আপনাকে বা আপনার পরিবারকে ছুঁতে পারবেনা করোনা

বর্তমানের ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে নিস্তার পাওয়াটাই এখন সকল মানুষের একমাত্র লক্ষ্য. কিন্তু কিভাবে পাবো এই ভয়ানক কোবিড ১৯ এর হাত থেকে মুক্তি? কোবিড ১৯ ভাইরাস...

অতিমারির মধ্যেও প্রকৃতির আরো কাছে ফিরে যাচ্ছেন জয়া আহসান..

করোনা নামক ভয়ঙ্কর ভাইরাস বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। সকলকে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। কিন্তু শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে তার কণ্ঠে বিষন্নতা রয়েছে। চারিদিকে...

চারিদিকে অক্সিজেনের হাহাকার, এই পরিস্থিতিতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন টলি তারকারা…

গোটা বিশ্ব আজ করোনা মহামারীর কবলে। Covid এর দ্বিতীয় ঢেউ তে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ সাথে মৃত্যু। করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে এই প্রথম দৈনিক সংক্রমণ বেড়ে...