Home উৎসব শেষ মুহূর্তে কি তবে বন্ধ হয়ে যাবে দুর্গাপূজা? মামলা হাইকোর্টে...

শেষ মুহূর্তে কি তবে বন্ধ হয়ে যাবে দুর্গাপূজা? মামলা হাইকোর্টে…

এবছর করোনা আবহে অনেকেই দুর্গাপুজো করার বিপক্ষে। কারণ যে হারে করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে, তাতে পুজোর পর এই সংখ্যা আরও অনেকটাই বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।



এবার হাইকোর্টে মামলা দায়ের করা হয়েছে যাতে বারোয়ারি দুর্গাপুজো বন্ধ থাকে। অজয় কুমার দে যিনি এই মামলাটি দায়ের করেছেন তার মতে যেখানে কেরলের ওনাম উৎসব পালনের পর কি অবস্থা হয়েছে তা আমরা সকলেই দেখেছি, হু হু করে বেড়েছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সেখানে দুর্গাপুজো হলে করোনা সংক্রমণ এখানেও অনেক বেশি হয়ে যাবে। মহারাষ্ট্রে ঠিক এই কারণেই গণেশ পুজো এবং মহরম উৎসব পালন বন্ধ রাখা হয় এবছর।



এখানেও যাতে দুর্গাপুজো বন্ধ হয় সেই দাবিতেই মামলা করেছেন তিনি। হাইকোর্টে কাল মামলাটি উঠবে । অজয় কুমার দের আইনজীবীর নাম সব্যসাচী চ্যাটার্জী।

সামনেই পুজো আর তার আগে পুজো শপিং কে কেন্দ্র করে বেশ কিছু জায়গায় মারাত্মক ভিড় দেখা গেছে। এমনকি অনেক কেই দেখা গেছে মাস্ক ছাড়া, যেখানে দিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে সেখানে এখনও অনেক মানুষ সচেতন নন, এই অবস্থায় পুজো হলে বিপদের আশঙ্কা অনেক বাড়তে পারে।



যদিও বাংলায় সুস্থতার হার বাড়ছে কিন্তু সংক্রমণের হারও লাগাতার বাড়ছে। পুজো হলে দ্রুত গতিতে বাড়তে পারে করোনা সংক্রমণ আশঙ্কা প্রকাশ করে উদ্বিগ্ন চিকিত্‍সক মহলও। তাই অনেকেই মনে করছেন আগে সুস্থ থাকা প্রয়োজন, তারপর পুজো। পুজোর আনন্দে সবকিছু ভুলে গেলে পরে করোনা অতিমারি আরও ভয়ানক আকার নিতে পারে।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...