Home রাজ্য ৪০ দিনের শিশু কুপিয়ে খুন হল মা'য়ের হাতে, কারণ কি? উঠছে একাধিক...

৪০ দিনের শিশু কুপিয়ে খুন হল মা’য়ের হাতে, কারণ কি? উঠছে একাধিক প্রশ্ন

মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠল মাত্র ৪০ দিনের ফুটফুটে শিশুকন্যাকে খুনের। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। বছর ২৭-এর চৈতালির সাথে ৭ বছর আগে বিয়ে হয়
নবগ্রামের বাসিন্দা বিভাস মণ্ডলের। মৃত শিশুটি তাদের দ্বিতীয় সন্তান।প্রথম সন্তান সিজারের পর মারা যায়।



কেন মা একরত্তি মেয়েকে খুন করল, উঠছে নানা প্রশ্ন।
চৈতালির বাপের বাড়ির অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির লোকেদের অত্যাচার সহ্য করতে পারছিল না তাদের মেয়ে। অভিযুক্তের বাবা দীনদয়াল মণ্ডল জানিয়েছেন চৈতালি মরার কথা বলত
শ্বশুরবাড়ির অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে।একাধিকবার তার মেয়ে ও জামাইয়ের সাথে ঝামেলা হয় কিন্তু তা মিটমাট করে দেওয়া হয়।



শুক্রবার সকালে ওই অভিযুক্তের বৌদির শৌচাগারে কাপড় জড়ানো অবস্থায় মৃতদেহটি চোখে পরে,যার পাশেই ছিল ধারালো অস্ত্র।

অভিযুক্তের এক আত্মীয় ঝুমি মণ্ডলের বক্তব্য , সকাল থেকেই বাচ্চাটাকে দেখতে পায় নি তারা, বাথরুমের দরজা খুলতেই এমন দৃশ্য দেখে সকলকে ডাকেন তিনি।



তবে শ্বশুরবাড়িতে অত্যাচার করা হত এই অভিযোগ একেবারেই অস্বীকার করেছেন চৈতালির স্বামী, বিভাস মন্ডল স্ত্রীর শাস্তির দাবি করে বলেন ফোনে তাকে দুধ আনতে বললে সাথে সাথে তিনি দুধ পাঠিয়ে দেন। কোনও রকম ঝামেলা হয়নি বলেই দাবি তার, কেন মারল তার সন্তানকে, স্ত্রী র শাস্তি চান তিনি।



অভিযুক্তর কোনো মানসিক সমস্যা আছে নাকি এর নেপথ্যে অন্য কোনো কারণ, তদন্ত করছে পুলিশ,অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

সরস্বতী নাট্যোৎসবের দ্বিতীয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে

করোনা প্রকোপ খানিক শান্ত হতে না হতেই এই শীতের মরসুমে নাট্যপিপাসু দর্শকদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের বিষয় কলকাতা সহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে অনুষ্ঠিত হওয়া নাট্যোৎসবে...

“পাই” এর উৎসবে মাতলো কলকাতা। ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি পর্যন্ত চললো সেলিব্রেশন

কলকাতায় গল্ফগ্রীনে পুরো সপ্তাহ ধরে চললো "পাইয়ের উৎসব"। "দ্য পাই হাউসের" পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পাই ডে উপলক্ষে ২০ থেকে ২৬ শে জানুয়ারি সেলিব্রেট করা...

কলকাতা প্রেক্ষাপট এর নাট্য – পার্বণ

ভারতীয় সংকৃতির পীঠস্থান আমাদের এই বাংলা । নাট্যচর্চা বাংলার তথা ভারতীয় সংস্কৃতির এক অভূতপূর্ব ধারাকে বহন করে নিয়ে চলেছে প্রাচীনকাল থেকেই । বরাবরই বিভিন্ন...

সুযোগ পেলে আমিও স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাবো” বললেন দিলীপ ঘোষ

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে এবার সামিল রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করেছেন দিলীপ ঘোষ ও তার পরিবার এমনই দাবি করলেন বীরভূম...