Home ধর্মীয় রামের পর কর্নাটকে ২১৫ মিটার উচ্চতার হনুমান মন্দির!

রামের পর কর্নাটকে ২১৫ মিটার উচ্চতার হনুমান মন্দির!

রামের পর কর্নাটকে ২১৫ মিটার উচ্চতার হনুমান মন্দির!

বুধবার অযোধ‍্যায় ধূমধাম করে হয়ে গেল রাম মন্দিরে ভূমিপুজো। এবার সেই বিলাসবহুল মন্দিরের নির্মানের কাজ। রাম মন্দির গঠনকার্য নিয়ে রীতিমতো তুঙ্গে নেটদুনিয়া। তবে রামমন্দিরের রেশ কাটতে না কাটতেই কর্নাটকের হাম্পিতে তীর্থভূমি ট্রাস্টের তরফে তৈরী হল হনুমান মন্দির। রামের জন্মভূমির পাশাপাশি হাম্পিতেও নির্মান হতে চলেছে হনুমানের আকাশছোঁয়া মন্দির।

তবে রামের ভক্তদের আশ্বস্ত করে বলা হয়েছে, হনুমানের মন্দিরের উচ্চতা রামের মন্দিরের তুলনায় ৬ মিটার কম হবে। কারন ভক্তের মন্দির কখনই ভগবানের মন্দিরের তুলনায় উচু হয় না। কিন্তু কেমন হবে হনুমান মন্দির,? তীর্থভূমি ট্রাস্ট সুত্রে খবর, হাম্পিতে হনুমান মন্দির ২১৫ মিটারের হবে আর রামের মুর্তির উচ্চতা ২২১ মিটার হওয়ার কথা।

আরও জানা গেছে, এই হনুমান মুর্তি নির্মানে আনুমানিক সময় লাগবে ৬ বছর। আর এই আকাশছোঁয়া মুর্তি তৈরী হতে খরচ হবে প্রায় ১২০০ কোটি টাকা। তীর্থ ক্ষেত্র ট্রাস্টের সাধু সরস্বতী স্বামীর কথায়, ভগবান রামচন্দ্রের শ্বাশ্বত ভক্ত হনুমান মুর্তির উচ্চতা পরিকল্পনামাফিক ভাবে ৬ মিটার কম করা হবে।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, উত্তরপ্রদেশের ফৈজাবাদ জেলার বরহাটা গ্রামে গড়ে উঠবে ঐই বিশাল হনুমান মন্দির যার গঠন কার্য ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। এই মুর্তি গড়তে প্রায় ৮৫ একর জমি লাগবে। আর প্রশাসন তরফ থেকে সেই নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আর তারপর থেকেই ভিটে হারানোর প্রহর গুনছে। গ্রামে প্রায় ৩৫০ টি পরিবারের বাস তাদের প্রত‍্যেকের পেট চলে কৃষিকাজ করেই। তাই জমি হারালে ভবিষ্যৎ কী হবে জানে না তারা।

- Advertisment -

জনপ্রিয়

ছয় দিনে পাঁচটি আন্তর্জাতিক পুরস্কারে পুরস্কৃত হল ইন্দ্রনীল ব্যানার্জী এর নতুন ছবি উর্মিমালা..

বাঙালি বরাবরই সিনেমাপ্রেমী আর অভিনবত্বে যে সবার আগে তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। এই বাঙলাতেই জন্ম নিয়েছেন বহু প্রতিভাবান ফ্লিম মেকার, তার মধ্যে অস্কার...

১ লা আগস্ট ‘কলকাতা সিমলা A বং পজেটিভ’ নাট্য দলের পক্ষ থেকে উদযাপন করা হল পঞ্চম জন্মদিন…

১ লা আগস্ট কলকাতা সিমলা A বং নাট্য দলের পক্ষ থেকে পালন করা হলো পঞ্চম জন্মদিন। এই উপলক্ষে হেদুয়ার আর্কহার্ট স্কোয়ারে আয়োজন করা হয়েছিল...

মনের মানুষ খ্যাত অভিষেক চৌধুরী নিয়ে আসছে বাংলার প্রথম ফিউচারিস্টিক ওয়েব ফিল্ম!

কেফি মিডিয়া অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট এর পক্ষ থেকে এবং পরিচালক অভিষেক চৌধুরীর পরিচালনায় আসতে চলেছে বাংলার প্রথম ফিউচারিস্টিক ওয়েব ফিল্ম। এর আগে পরিচালক অভিষেক চৌধুরীর...

অভিজ্ঞান মুখোপাধ্যায় পরিচালিত পাঁচটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র চিত্রায়িত হচ্ছে কলকাতায়…

"ফ্যান্টাসম" নামের স্বল্পদৈর্ঘ্যর চলচ্চিত্রটি নীলাদ্রি শঙ্কর রায় প্রযোজনা করেছিলেন। পরবর্তীতে, পরিচালক অভিজ্ঞান মুখোপাধ্যায় বাকি চারটি ভিন্ন ভিন্ন গল্পকে একে অপরের সাথে যুক্ত করে একটি ভিন্ন...